মমতার বিদেশ সফরে কত খরচ? RTI করেও তথ্য না মেলায় এবার আইনি পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গত সেপ্টেম্বর মাসে শিল্পে বিনিয়োগ টানতে স্পেন সফরে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বাংলা থেকে প্রতিনিধি দল সমেত বিদেশ (Foreign Trip) পাড়ি দিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। সেখান থেকে গিয়েছিলেন দুবাই তেও। টানা ১১ দিনের মুখ্যমন্ত্রীর বিদেশ সফর ছিল ঠাসা কর্মসূচীতে ভরপুর। ওদিকে মমতার বিদেশযাত্রার মাঝেই সেই সফরের খরচ নিয়ে আরটিআই করেছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেপ্টেম্বর-অক্টোবর পেরিয়ে বর্তমানে নভেম্বর। শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) করা RTI-এর এখনও কোনও জবাব মেলেনি। এই আবহে সেই বিষয়কেই হাতিয়ার করে ফের সরব হলেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক।

পূর্বে মুখ্যমন্ত্রীর ১১ দিনের বিদেশ সফরে কত খরচ হল? মুখ্যমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে কতজন গিয়েছেন? সেই সফরসঙ্গীদের নাম ও পদ কী কী? কীসের নিরিখে তাদের প্রতিনিধি দলে রাখা হল? কতজন মাঝপথে মমতার বিদেশ সফরে যোগ দিয়েছেন? পাশাপাশি মোট বিমানের ভাড়া দিতে কত অর্থ খরচ হয়েছে, হোটেলের খরচ কত, গাড়ির খরচ–সহ নানা বিষয়ে বিস্তারিত সঠিক তথ্য জানতে চেয়ে আরটিআই করেছিলেন শুভেন্দু।

তবে নভেম্বর মাসের প্রায় ১০ তারিখ হতে চললেও সেই আরটিআই এর কোনও উত্তর মেলেনি। তাই এবার ফের টুইট করে সেই ইস্যু টানলেন বিরোধী দলনেতা। এদিন টুইটে শুভেন্দু লেখেন, ‘২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩-এ, আমি রাজ্য পাবলিক ইনফরমেশন অফিসারের কাছে তথ্য অধিকার আইন, ২০০৫-এর ধারা ৬ এর অধীনে করা আবেদনের মাধ্যমে শিল্প, বাণিজ্য ও উদ্যোগ বিভাগের কাছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং স্পেনের ১১দিনের সফর সংক্রান্ত কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য চেয়েছিলাম। ”

“সেই আবেদনগুলি স্বরাষ্ট্র দফতর, তথ্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক বিভাগ এবং পর্যটন দফতরের রাজ্য জন তথ্য আধিকারিকদের কাছেও পাঠানো হয়েছিল। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কেউই ৩০ দিনের বিধিবদ্ধ সময়ের মধ্যে সাড়া দেননি। তাই, আমি ফের ২রা নভেম্বর, ২০২৩-এ তাদের সবাইকে একটি রিমাইন্ডার পাঠিয়েছি।”

আরও পড়ুন: এদের বিরুদ্ধেও ED-CBI তদন্ত হোক! ছয় BJP নেতার নাম সামনে আনল তৃণমূল, তালিকায় কারা?

শুভেন্দুর টুইটঃ 

https://x.com/suvenduwb/status/1721773048452550672?s=48&t=H-35pzf62xpOvQoyCyAm4w

suvendu mamata

“কেন তারা মুখ্যমন্ত্রীর বিদেশ সফরের তথ্য দিচ্ছে না? তারা কি লুকাচ্ছে? তথ্য অধিকার আইন, ২০০৫-এর বিধানগুলি মেনে না চলার জন্য কে তাদের নির্দেশ দিয়েছে?” এই সমস্ত বিষয়ে অভিযোগ তুলে এদিন নিজের এক্স হ্যান্ডেল থেকে কড়া টুইট করেন শুভেন্দু।

শুধু তাই নয়, শুভেন্দু আরও লেখেন, “আমি তাদের প্রতিক্রিয়ার জন্য আরও কয়েক দিন অপেক্ষা করব এবং তারপরে আমি এই বিষয়ে আদালতের দ্বারস্থ হব’।