টাইমলাইনবিনোদন

খুঁটিপুজোয় স্বস্তিকাকে পেতে ফোন নম্বর বিলি! ক্ষোভ উগরে দিলেন অভিনেত্রী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: পুজো (Durgapuja) প্রায় দোরগোড়ায়। বিভিন্ন ক্লাবের পুজোগুলির মণ্ডপ তৈরির কাজ চলছে পুরোদমে। অনেক জায়গায় খুঁটিপুজো বা দূর্গাপুজোর উদ্বোধনের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে বড়পর্দা ও ছোটপর্দার তারকাদেরও। কিছুদিন আগে পুজোর উদ্বোধনে ফিতে কাটার জন্য ছোটপর্দার তারকারা কে কত পারিশ্রমিক নেন, তার একটি প্রতিবেদনকে ‘ভুয়ো’ বলে দাবি করে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন সৌমিতৃষা, গৌরবরা। এবার ফের সুর চড়ালেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় (Swastika Mukherjee)।

একটি বিজ্ঞাপনের পোস্টার শেয়ার করে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন তিনি। পোস্টারের মধ্যমণি স্বস্তিকা নিজে। সবুজ সোনালি শাড়ি, গয়নায় সেজে একমুখ উজ্জ্বল হাসি নিয়ে যথারীতি সুন্দরী স্বস্তিকা। পোস্টারে লেখা, যে কোনো লাইভ শো এবং খুঁটিপুজোর জন্য যোগাযোগ করতে গৌতম ভৌমিক এবং স্বপন পোড়েল নামে দুজন ব্যক্তির ফোন নম্বর দেওয়া রয়েছে।


পোস্টারটি শেয়ার করে ক্ষুব্ধ স্বস্তিকা লিখেছেন, ‘এটাই মনে হচ্ছে নিয়ম হয়ে গেছে, আর্টিস্ট দের সঙ্গে কোনোরকম কথা না বলে, তাদের মতামত না নিয়ে, লিখিত কোনো পারমিশন ছাড়াই তাদের ছবি ব্যবহার করে প্রচার করা। আমি কারুর সঙ্গে চুক্তি তে নেই, এক্সক্লুসিভলি তো কোন ভাবেই নই।’ সঙ্গে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগের জন্য একটি নম্বরও দিয়ে দিয়েছেন স্বস্তিকা।

অনুমতি না নিয়ে তাঁর ছবি দিয়ে এমন পোস্টার দেওয়ায় স্বস্তিকা রীতিমতো ক্ষুব্ধ। কিন্তু এই পোস্টারও কি ভুয়ো? এ বিষয়ে জানতে সংবাদ মাধ্যমের তরফে পোস্টারে নাম ও ফোন নম্বর দেওয়া গৌতম ভৌমিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ভুলটা তাঁর তরফেই হয়েছে। আসলে তিনিই আগে স্বস্তিকার ম্যানেজার ছিলেন। লকডাউনের পর বদলে যায় সবকিছু।


গ্রামের দিকে কেউ অনুষ্ঠানের জন্য অভিনেত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইলে বর্তমান ম্যানেজারের মাধ্যমেই যোগাযোগ করিয়ে দেবেন বলে জানান গৌতম ভৌমিক। কিন্তু তাঁর ভুল হয়েছে, বিজ্ঞাপনটি দেওয়ার আগে স্বস্তিকা বা তাঁর ম্যানেজারের সঙ্গে যোগাযোগ করে অনুমতি নেননি তিনি। ভুল স্বীকার করে অভিনেত্রীর কাছে পোস্টটি তুলে নেওয়ার জন্য তিনি আবেদন করবেন বলেও জানান গৌতম ভৌমিক।

Related Articles