টাইমলাইনবিনোদন

বাস্তবে মা হলেও পর্দায় কাজলের মা সাজতে চাননি, বিরক্তি উগরে দিলেন তনুজা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বলিউড তথা বাংলা সিনেমার স্বর্ণযুগের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী তনুজা (Tanuja)। শোভনা সমর্থের মেয়ে তনুজা ফিল্মি পরিবারের মেয়ে, বিয়েও হয়েছে ফিল্মি পরিবারে। তাঁর দুই মেয়ে কাজল (Kajol) ও তনিশা, দুজনেই অভিনয় জগতে পা রাখলেও বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছেন কাজল। একসঙ্গে পর্দায় অভিনয়ও করেছিলেন তনুজা এবং কাজল। তাও আবার মা মেয়ের চরিত্রে।

বলিউডে কাজলের ডেবিউ ছবি ছিল ‘বেখুদি’। ১৯৯২ সালে মুক্তি পেয়েছিল সেই ছবি। সেখানে কাজলের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তনুজা। কিন্তু বর্ষীয়ান অভিনেত্রী পরবর্তীকালে জানিয়েছিলেন, তাঁর একেবারেই ইচ্ছা ছিল না পর্দায় কাজলের মা হওয়ার। কিন্তু তাঁকে জোর করায় তিনি বাধ্য হয়েছিলেন।


তনুজা জানান, সকলেই তাঁকে বলেছিলেন মেয়ের অনস্ক্রিন মায়ের চরিত্রে অভিনয় করতে। কিন্তু তাঁর একেবারেই ইচ্ছা ছিল না। অভিনেত্রীর কথায়, “যখন কেউ বলে, তনুজা জি আপনার মায়ের চরিত্রে অভিনয় করা উচিত। তখন আমার খুব বিরক্তি লাগে। আমার খুব আজব লাগে। সবাই জানে যে আমরা বাস্তবে মা মেয়ে, আবার এগুলো কেন…”

তিনি বলেন, যেমন ভাবে তিনি অভিনয় করেন, ওই চরিত্রটি নিয়ে তেমন করতে পারতেন না তিনি। কিন্তু যেহেতু পরিচালক রাহুল রাওয়েলকে তিনি তাঁর ছোটবেলা থেকে চেনেন তাই তিনি রাজি হয়েছিলেন। চরিত্রটিতে তেমন কিছু করার ছিল না। কিন্তু যেহেতু কাজলের ওটা প্রথম ছবি ছিল তাই আর না করেননি তনুজা। তবে তিনি জানান, তাঁর কাছে সুযোগ থাকলে তিনি না-ই বলতেন।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার ৭৯ তে পা দিলেন তনুজা। মাকে ভালবাসা পূর্ণ শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন কাজল। বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর পুরনো কিছু ভিডিও শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, ‘সিনেমাতে ৭০ বছর আর আমার মা হিসাবে ৪৮ বছর অতিক্রান্ত করলেন। এই পুরো সফরটায় একবারের জন্যও আমার ভালবাসা কমেনি।’ শাশুড়ি মাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জামাই অজয় দেবগণ।

Related Articles