টাইমলাইনভারত

ধনী ব্যবসায়ীর তাজের উপর কড়া লড়াই, আম্বানিকে টপকে ১ নাম্বারে উঠে এল টাটা গ্রুপ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ টাটা গ্রুপ (Tata Group) এবং রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ (Reliance Industries)- দেশের দুই বৃহত ব্যবসায়িক সংস্থার মধ্যে শীর্ষ স্থান দখল নিয়ে লড়াই লেগেই রয়েছে। কখনও টাটাকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যাচ্ছে রিলায়েন্স, আবার কখনও রিলায়েন্সকে টপকে শীর্ষ স্থান দখল করছে টাটা।

সমীক্ষা বলছে, গত বছর জুলাইয়ে মুকেশ আম্বানির ‘রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ’, রতন টাটার ‘টাটা গ্রুপ’-কে পেছনে ফেলে দেশের সবথেকে ধনী ব্যবসায়ীর স্থান দখল করে নিয়েছিল। মাত্র ৬ মাসের মধ্যেই নিজের ব্যবসায়িক ক্ষমতার প্রকাশ ঘটিয়ে হারানো জায়গা আবারও ফিরে ফেলেন রতন টাটা।

দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত জিনিস লবণ থেকে শুরু করে সফটওয়্যার উৎপাদনকারী সংস্থা টিসিএসের সাহায্যে মার্কেটে আবারও নিজেদের জায়গা ঠিক রাখতে পেরেছে টাটা গ্রুপ। প্রথম স্থান টাটা গ্রুপ ফিরে পেলেও তৃতীয় স্থানে চলে গেছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। মাঝে দ্বিতীয় স্থানে ঢুকে পড়েছে আবার এইচডিএফসি গ্রুপ।

আজকের দিনে টাটা গ্রুপের মার্কেট কেপ অর্থাৎ মোট অর্থ ভাণ্ডারের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ১৭ লক্ষ কোটি টাকা। ওদিকে দ্বিতীয় স্থানে থাকা HDFC Group-র মোট অর্থ ভাণ্ডারের পরিমাণ প্রায় ১৫.২৫ লক্ষ কোটি টাকা। গত এক বছরে মার্কেটে টাটা গ্রুপের পারফরমেন্স দারুণ ছিল। যার কারণেই ৪২ শতাংশ অর্থের পরিমাণ বেড়ে গিয়েছে। শুধুমাত্র গত এক মাসেই এই পরিমাণ ১৩ শতাংশ অর্থাৎ ১.৯ লক্ষ কোটি টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যদিকে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের বেড়েছে ২৭ শতাংশ এবং HDFC Group-এর বেড়েছে মাত্র ১১ শতাংশ।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, ২০২০ সালের জুলাই মাসে টাটা গ্রুপের মার্কেট কেপ ১১.৩২ লক্ষ কোটি টাকা ছিল। কিন্তু তখন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের মার্কেট কেপ ছিল ১৩ লক্ষ কোটি টাকা। সেই কারণেই তখন রতন টাটাকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থানে পৌঁছান মুকেশ আম্বানি। এরপর এক বছরও না, মাত্র ৬ মাসের মধ্যেই নিজের হারানো জায়গা ফিরে পায় রতন টাটা।

Back to top button