টাইমলাইনভারত

এবার TCS কর্মচারীদের পোয়াবারো! মাত্র তিন দিন যেতে হবে অফিস, বাড়ছে বেতনও

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমানে দেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি IT সংস্থা হল টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিস (Tata Consultancy Service) বা TCS। প্রতি বছরই এই সংস্থার তরফে হাজার হাজার কর্মী নিয়োগ করা হয়। পাশাপাশি, এই সংস্থায় কাজ করার জন্য মুখিয়ে থাকেন যোগ্য প্রার্থীরাও। এমতাবস্থায়, TCS এবার নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে চলেছে। যার ফলে কর্মীরা অত্যন্ত লাভবান হবেন। এমনিতেই করোনার মত ভয়াবহ মহামারীর ফলে “Work From Home” শব্দটি এখন খুবই পরিচিত। যেখানে, সংক্রমণ এড়াতে বাড়িতে বসেই নিজেদের কাজ করতে পারতেন কর্মীরা।

যদিও, সংক্রমণের ভয়াবহতা কিছুটা স্তিমিত হয়ে যাওয়ার পরেই স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে শুরু করে জীবন। তবে, এখনও যে সংক্রমণের রেশ পুরোপুরি শেষ হয়েছে, তা কিন্তু নয়। বরং, নতুন করে চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কায় দেখা দিয়েছে। তার ওপরে ফের চিন্তা বাড়াচ্ছে মাঙ্কিপক্স ভাইরাস। এমতাবস্থায়, এখনও কিছু কিছু সংস্থা ওয়ার্ক ফ্রম হোমের পরিস্থিতিতেই কাজ করার নির্দেশ দিচ্ছে। তবে, এবার TCS-এর মত বড় সংস্থা হাইব্রিড মডেল শুরু করার পরিকল্পনা করছে।

কি এই মডেল: হাইব্রিড মডেল হল এমন একটি কর্মপদ্ধতি যেখানে কর্মীরা বাড়িতে বসে কিছুটা কাজ করতে পারবেন এবং নির্দিষ্ট দিনের পরিপ্রেক্ষিতে অফিসেও যেতে পারবেন। অর্থাৎ, পুরো কাজটাই অফিসে গিয়ে না করে বাড়ি এবং অফিসের সংমিশ্রণে কাজ করার যে পদ্ধতি, সেটাকেই হাইব্রিড পদ্ধতি বলা হচ্ছে। এমতাবস্থায়, TCS-ও এই কর্মপদ্ধতি বজায় রাখতে চাইছে।

কিভাবে হবে কাজ: যেহেতু, এই মডেলের ভিত্তিতে কর্মীরা বাড়িতে থেকেও কাজ করতে পারবেন সেহেতু, সমস্ত কর্মচারীদের অফিসে ডাকা হচ্ছে না। জানা গিয়েছে, যাঁরা উর্ধ্বতন কর্মচারী বা ম্যানেজার পদে কাজ করে থাকেন তাঁদেরকেই অফিসে আসতে হবে। যদিও, এখানেও রয়েছে বাড়িতে কাজ করার সুযোগ। মূলত, সপ্তাহের মাত্র তিন দিন অফিসে আসতে হবে তাঁদের। অর্থাৎ, বাকি দিনগুলিতে বাড়িতে থেকেই করা যাবে কাজ।

বাড়ানো হবে বেতন: জানা গিয়েছে যে, অফিসে যাওয়ার ক্ষেত্রে নতুন কর্মপদ্ধতির আবহেই এবার কর্মীদের বেতন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিস। এই প্রসঙ্গে TCS কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে যে, চলতি বছরের শেষেই ৬ থেকে ৮ শতাংশ বেতন বাড়তে চলেছে কর্মচারীদের। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনা মহামারীর সময়ে সর্বত্রই একটি আকাল পরিলক্ষিত হলেও দেশের IT সেক্টর ভালো লাভ করেছে। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় খুশি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। আর সেই কারণেই হয়ত কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির কথা ভেবেছেন তাঁরা।

Related Articles