টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

ব্যর্থ উমরানদের চেষ্টা, ল্যাথামের আগ্রাসী শতরানে ভর করে প্রথম ODI-তে জয় কিউয়িদের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: ব্যর্থ হয়ে গেল শ্রেয়স আইয়ার, শিখর ধাওয়ান, উমরান মালিকদের প্রচেষ্টা। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে রানের পাহাড় গড়েও ম্যাচ জিততে ব্যর্থ হলো ভারতীয় দল। টম ল্যাথামের আগ্রাসী শতরান ও কিউয়ি অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ঠান্ডা মাথার ৯৪ রানের ইনিংসে ভর করে বড় জয় পেল নিউজিল্যান্ড। টি-টোয়েন্টি সিরিজে লজ্জার হারের পর ওডিআই সিরিজের জয় দিয়ে শুরু করলো ব্ল্যাক ক্যাপ্সরা।

অথচ শুরুটা মন্দ করেনি ভারতীয় দল। ধাওয়ান ও শুভমান গিলের অর্ধশতরানে ভর করে ১২৪ রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ গড়েছিল তারা। তারপর সেই ভিতের ওপর বড় রানের ইমারত করে দিয়েছিলেন শ্রেয়স আইয়ার (৮০), সঞ্জু স্যামসন (৩৬), ওয়াশিংটন সুন্দর (৩৭*)। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩০৬ রান তুলেছিল তারা।

Team India,India vs New Zealand,Tom Latham,Kane Williamson,Umran Malik,Shreyas Iyer,Shikher Dhawan

অপরদিকে উমরান মালিকের অসাধারণ বোলিংয়ের সৌজন্যে বেকায়দায় পড়ে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। ফিন অ্যালানকে শার্দূল ঠাকুর ফিরিয়েছিলেন। এরপর নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক ওডিআই ম্যাচ খেলতে নামা উমরান নিজের প্রথম স্পেনে গতিশীল বোলিং করে কনওয়ে (২৪) ও ড্যারেল মিচেলকেও (১১) ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। ২০ ওভারে ৮৮ রান তুলতে গিয়েই ৩ উইকেট হারিয়ে বেকায়দায় পড়ে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড।

এই অবস্থায় অধিনায়ক উইললিয়ামসন, ল্যাথামকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংসের হাল ধরেন। প্রথমদিকে কিছুটা সতর্কভাবে খেলেন তারা। এরপর উইলিয়ামসনের কাজ হয় এক প্রান্ত সামনে রাখা এবং ভারতীয় বোলিংয়ের ওপর আক্রমণ করেন ল্যাথাম। আর কয়েক ওভারের মধ্যেই খেলার গতিপথ পুরোপুরি বদলে যায়।

ওয়াশিংটন সুন্দর বাদে কোনও বোলার বাঁ-হাতি কিউয়ি তারকার আক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পাননি। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা হয় শার্দূল ঠাকুরের। ১৩০কিমি প্রতি ঘন্টা গতি নিয়ে তিনি ল্যাথামকে শর্ট বলের মাধ্যমে আক্রমণ করার চেষ্টা করছিলেন। খুব স্বাভাবিকভাবেই তিনি ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রান খরচ করেছেন।

অনায়াস ভঙ্গিতে দাপটের সাথে শতরান করেন ল্যাথাম। শেষপর্যন্ত ১০৪ বলে ১৯টি চার ও ৫টি ছক্কা সহ ১৪৫ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন অল্পের জন্য সেঞ্চুরি হাতছাড়া করলেও ৯৮ বলে ৯৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। ১৭ বল বাকি থাকতেই পাহাড় প্রমান লক্ষ্যে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। নিজের আন্তর্জাতিক ওডিআই অফিসেকে দুটি উইকেট নিলেও ৬৬ রান খরচ করেন উমরান মালিক।

Related Articles