টাইমলাইনখেলাক্রিকেটIPL

অবসর নেওয়ার বয়সে জাতীয় দলে ফিরলেন এই বিধ্বংসী ক্রিকেটার, ভেসে রইলো কেরিয়ার

 বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করা হয়ে গিয়েছে গত সপ্তাহেই। খুব স্বাভাবিকভাবেই বেশি ধকল এড়ানোর জন্য এই সিরিজে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মার মত বড় তারকাদের। বদলে দলে সুযোগ পেয়েছেন একাধিক নতুন তারকা।

সম্প্রতি, দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে ওয়ান ডে ও টেস্ট সিরিজ হেরে ফেরে ভারত। সেই হার ভুলিয়ে এই সিরিজটিকে বদলার মঞ্চ হিসেবেই দেখছে তারা। তবে যেহেতু এই মুহূর্তে আইপিএল চলছে এবং সামনেই রয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সহ একাধিক সিরিজ, সেই কারণেই এক্ষেত্রে সাময়িক বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে কোহলি এবং রোহিত শর্মা সহ একাধিক তারকাকে। সেই জায়গায় ভারতীয় দলে যেমন অনেক নতুন মুখ সুযোগ পেয়েছে, ঠিক সেরকম ভাবেই দলে ফিরে এসেছে বেশ কয়েকজন পুরনো তারকাও, যার মধ্যে অন্যতম হলেন দীনেশ কার্তিক। শেষবার তিনি ভারতের জার্সি গায়ে চাপিয়েছিলেন ২০১৯ বিশ্বকাপে। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেইবার সেমিফাইনালে হেরে ভারত বিদায় নিয়েছিল। আর সেই সেমিফাইনালে যা পারফরম্যান্স ছিল দীনেশ কার্তিকের তা দেখে সকলে ধরেই নিয়েছিলেন যে ভারতের হয়ে সেটাই হতে যাচ্ছে তার শেষবার মাঠে নামা। কিন্তু সেই আশঙ্কাকে নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে ভুল প্রমাণ করেছেন কার্তিক।

সম্প্রতি আইপিএলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেলেন কার্তিক। সকল ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীই তাকে দলে ফেরানোর দাবি তুলেছিলেন। দীনেশ কার্তিক নিজেও আইপিএলের আগে একটি সাক্ষাৎকারে ভারতীয় দলে ফিরতে চান বলে জানিয়েছিলেন। তখন অবশ্য অনেকেই এই কথা শুনে হেসেছিলেন। কিন্তু এখন তাদের প্রত্যেককে নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে জবাব দিয়েছেন কার্তিক। এর আগে তিনি ভারতের হয়ে ৩২টি টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ১৪৩-এর স্ট্রাইক রেটে ৩৯৯ রান করেছিলেন।

ভারতীয় দলে ফেরার পর দীনেশ কার্তিক সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে লিখেছেন “যদি তুমি নিজের ওপর বিশ্বাস রাখো, তাহলে কোনও কিছুই অসম্ভব না। সকলের বিশ্বাস এবং আমার পাশে দাঁড়ানোর জন্য ধন্যবাদ।” এই মরশুমে আরসিবির হয়ে ফিনিশারের ভূমিকা পালন করছিলেন তিনি। বেশ কয়েকটি ম্যাচে কোহলিদের হারের মুখ থেকে বাঁচিয়েছেন তিনি। আইপিএল ২০২২-এ তিনি মোট ১৬টি আইপিএল ইনিংসে ৫৫ গড়ে ৩৩০ রান করেছেন। সদ্যসমাপ্ত প্রতিযোগিতায় ফিনিশারের ভূমিকা পালন করা কার্তিক ১০টি ম্যাচে নট আউট ছিলেন এবং তার স্ট্রাইক রেট ছিল ১৮৩.৩৩।

Related Articles

Back to top button