টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

প্রতিজ্ঞা করছি বাংলাকে এই অগণতান্ত্রিক সরকারের হাত থেকে রক্ষা করবই! হুঙ্কার তেজস্বীর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নবান্ন (Nabanna) অভিযান শেষ হতেই সাংবাদিক বৈঠকে মমতা ব্যানার্জীর (Mamata Banerjee) সরকারের বিরুদ্ধে বড়সড় তোপ দাগলেন বিজেপির সর্বভারতীয় যুব মোর্চার সভাপতি তেজস্বী সূর্য (Tejasvi Surya)। তিনি বলেন, আজ বাংলার রাজনৈতিক ইতিহাসে কালো দিন হিসেবে গণ্য হবে। প্রকাশ্য দিবালোকে মমতা ব্যানার্জীর সরকার গণতন্ত্র এবং সংবিধানের গলা টিপে হত্যা করে। উনি জানান, বিজেপির হাজার হাজার কর্মী পুলিশের মারে আহত হয়েছেন আর ৫০০ জনের বেশি কর্মীকে গ্রেফতার করেছে।

তিনি বলেন, গতকাল রাত থেকেই শহরের বিভিন্ন এলাকায় বাস আটকে দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, যেই রাজ্যে রাজনৈতিক বিক্ষোভের অধিকার নেই, সেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আবার গলা চড়িয়ে বলেন গণতন্ত্র রক্ষা করছে। তিনি বলেন, আমরা যাতে নবান্নে যেতে না পারি, সেই জন্য গোটা হাওড়া ব্রিজ বন্ধ করে দিয়েছিল পুলিশ। কলকাতা ঢোকার বিভিন্ন রাস্তায় দাঁড়িয়ে বিজেপি কর্মীদের নির্মম ভাবে মারা হয়েছে। এটাই কি গণতন্ত্র?

তেজস্বী বলেন, গোটা দেশের মধ্যে সবথেকে দুর্নীতিগ্রস্ত সরকার হল বাংলার মমতা সরকার। চিটফান্ড, কাটমানি সিন্ডিকেট কিসে জড়িত নেই এরা? এমনকি প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের জন্য দেওয়া ত্রাণের টাকাও শাসক দলের নেতারা নিজেদের পকেটে পুড়ে নিচ্ছেন। এরপরেও এরা বলে, এরা সততার প্রতীক।

তিনি বলেন, রাজ্যে প্রায় দিনই বিজেপির নেতদের উপর হামলা, বিজেপির নেতাদের খুন করা হচ্ছে। এখনো পর্যন্ত বিজেপির ১২০ জন নেতা কর্মী খুন হয়েছে শাসক দলের দুষ্কৃতীদের হাতে। এমনকি বিধায়কদেরও বাদ দেয়নি এরা।

তেজস্বী বলেন, আমি সর্বভারতীয় যুব মোর্চার দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রথম কোনও বিক্ষোভে অংশ নিয়েছি। প্রতিজ্ঞা করছি বাংলাকে এই অগণতান্ত্রিক সরকারের হাত থেকে উদ্ধার করব। আমি বাংলার যুবক, যুবতীদের বলছি গোটা দেশ আপনাদের পাশে আছে। তিনি বলেন, বিজেপির যুব মোর্চাকে ভয় পেয়েছে মমতা দিদি। তাই তিনি আগেই দুই দিনের জন্য নবান্ন বন্ধ করে দিয়েছেন।

Back to top button