টাইমলাইনবাংলাদেশ

ইসলামের জনপ্রিয়তা ধ্বংস করতে সন্ত্রাস ও জঙ্গি হামলা চালানো হচ্ছেঃ বাংলাদেশের ধর্মীয় মন্ত্রক

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বিশ্ব থেকে জঙ্গি এবং সন্ত্রাসবাদীদের নির্মূল করতে এবার কোমর বেঁধে নেমে পড়ল বাংলাদেশ (Bangladesh)। ভারতের সুরে সুর মিলিয়ে এবার বাংলাদেশও জঙ্গি দমনে নিতে চলেছে কড়া পদক্ষেপ। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে সর্বস্তরের মানুষকে একজোট হওয়ার আহ্বানও জানিয়েছে।

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নোটিশ জারি করল বাংলাদেশ
সোমবার বাংলাদেশের ধর্মীয় মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জঙ্গি এবং সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে এক নোটিশ জারি করা হয়। দেশ থেকে সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করতে কিভাবে এগোবে বাংলাদেশ সরকার, সেই বিষয়ে বিবৃতি দেওয়া হয় ওই নোটিশে। নোটিশে লেখা হয়, ‘মানব জাতির জন্য শান্তি, কল্যাণ ও পরকালীন মুক্তির পথ হল ইসলাম (Islam)। কিন্তু বর্তমান সময়ে সেই শান্তির ইসলামের নাম এবং ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তা ধ্বংস করা হচ্ছে। এই কাজে অংশ নিয়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গি হামলা চালাচ্ছে একদল মানুষ। যা ধর্মপ্রাণ মানুষের মর্যাদাতে আঘাত হানছে’।

image 125166 1545547502 Bangla Hunt Bengali News

রাখতে হবে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী বক্তব্য
নোটিশে আরও বলা হয়, ‘ইসলামিক ফাউন্ডেশনে কর্মরত মুফতি, মুহাদ্দিস, মুফাসসির-সহ আলেম-ওলামারা, মসজিদের খতিব-ইমামরা প্রতি শুক্রবার করে নামাজের খুতবার আগে কোরান ও হাদিসের আলোকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী বক্তব্য রেখে সকলকে সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে একজোট হওয়ার বার্তা দেবেন। এই সন্ত্রাসবাদীদের কোন ধর্ম বা সীমানা  নেই। সন্ত্রাসবাদীদের সমস্ত রকম ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে সরকার সদা প্রস্তুত। আজ সারা বিশ্বের কাছে এই সন্ত্রাসবাদ একটা চ্যালেঞ্জের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সন্ত্রাসবাদকে দেশ থেকে উপড়ে ফেলতে সমাজের সকল স্তরের মানুষকেই ভীষণভাবে প্রয়োজন’।

একজোট হতে হবে সকলকে
সেইসঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের তরফ থেকে জঙ্গি দমনের ক্ষেত্রে বলা হয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সভা ও সমাবেশ আয়োজন করে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে সকলকে একজোট হতে হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সমস্ত স্তরের কর্মকর্তারা, জেলা প্রশাসক,উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং সব বিভাগীয় কমিশনারকে এই কাজে উদ্যোগ নিতে হবে। মানুষের মধ্যে সন্ত্রাস বিরোধী মনোভাব জাগিয়ে তুলতে হবে।

Back to top button