টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

১০০ থেকে বেড়ে ১৫০ কোটি, শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে বেড়েই চলেছে টাকার অঙ্ক! জানাল ED

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলায় টাকার পরিমাণ যেন দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। প্রথমে ১০, সেখান থেকে ৫০, ১০০ আর এবার সেই টাকার অঙ্ক ১৫০ কোটি ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে জানালো এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (Enforcement Directorate)। আদালতে প্রাক্তন তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress) নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) অস্বস্তি আরো বাড়িয়ে ঠিক এহেন দাবি করেছে তদন্তকারী সংস্থা।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি এসএসসি মামলায় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর ঘনিষ্ঠ অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে ইডি। অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে ৫০ কোটি নগদ অর্থ, একাধিক সোনা গয়না, মোবাইল ফোন এবং বিদেশি মুদ্রা উদ্ধার করার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র।

শুধু তাই নয়, পরবর্তীতে পার্থ এবং অর্পিতার নামে অন্যান্য একাধিক কোম্পানি ও সম্পত্তির হদিশ পায় তদন্তকারী অফিসাররা। আরো বেশ কয়েকটি কোম্পানির সন্ধান ইতিমধ্যেই পেয়েছে তারা আর সেই সূত্র ধরেই ইডির দাবি, নিয়োগ সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলায় টাকার অঙ্ক ১৫০ কোটি পর্যন্ত ছাড়িয়ে যেতে পারে।

ইডি সূত্রে খবর, সম্প্রতি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কয়েকটি সংস্থার খোঁজ পেয়েছে তারা, যার মধ্যে একটি মেমোরিয়াল ট্রাস্টের চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন প্রাক্তন তৃণমূল মন্ত্রীকন্যা বাবলি চট্টোপাধ্যায় এবং অপর গুরুত্বপূর্ণ পদে তাঁর জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্য। এক্ষেত্রে অতীতেও যেভাবে একেকটি কোম্পানি থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ উদ্ধার করা হয়েছে, সেই সূত্র ধরেই এদিন আদালতের নিকট ইডি জানায়, নিয়োগ সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলায় টাকার অঙ্ক ১৫০ কোটি ছাপিয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্যকে তলব করে তদন্তকারী সংস্থা। এছাড়াও অন্যান্য একাধিক অভিযুক্তদের দিকে নজর রয়েছে তাদের। এর মাঝেই এদিন আদালতে নতুন দুটি সংস্থার কথা তুলে ধরে ইডি অফিসাররা। এক্ষেত্রে তদন্তের স্বার্থে সেগুলির নাম খোলসা না করলেও পরবর্তীতে তদন্ত চালিয়ে আরো বহু পরিমাণ সম্পত্তি উদ্ধার করা যাবে বলেই দাবি ইডির।

Related Articles