টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

কম ভ্যাকসিন পাঠিয়েছে কেন্দ্র সরকার, গুরুতর অভিযোগ আনলেন মমতা ব্যানার্জী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ আশঙ্কার মেঘ সরিয়ে বাংলায় শুরু হল করোনা ভ্যাকসিনের (corona vaccine) গণটিকাকরণ। শুক্রবারই রাজ্যের বিভিন্ন সরকারী এবং বেসরকারি হাসপাতালে পৌঁছে গিয়েছিল এবং শনিবার সকাল থেকেই তা দেওয়া শুরু হয়েছে। তৃণমূলের দুই বর্তমান ও এক প্রাক্তন বিধায়কও এই টিকা নিয়ে নিয়েছেন ইতিমধ্যেই। কিন্তু এরই মধ্যে আবারও কেন্দ্রকে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee)।

এদিন কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সাধারণ মানুষদের করোনা টিকা দেওয়া হয়েছে। রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্ন থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে এই গণটিকারণের বিষয়ে নজরদারি করছেন। এই গণটিকারণ পদ্ধতি চালু হওয়ার মধ্যেই কেন্দ্র কটাক্ষ করলেন মমতা ব্যানার্জি। তাঁর কথার পাল্টা জবাব দিলেন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya)।

ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘রাজ্যের জন্য পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন পাঠিয়েছেন বলে জানিয়েছেন কেন্দ্র সরকার। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল। তবে এবিষয়ে যাতে কোন গুজব না ছড়ায়, সমস্যা না হয়, তাঁর জন্য জেলাশাসকদের সবদিকে খেয়াল রাখতে হবে। তবে ভয় পাওয়ার কোন কারণ নেই, রাজ্য সরকার সকলের জন্যই ভ্যাকসিন কেনার ব্যবস্থা করবে। আর সকলেই বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করবে’।

মুখ্যমন্ত্রীর এই কথার পাল্টা জবাব দিয়ে বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, ‘গোটা দেশের করোনা যোদ্ধাদের জন্য হিসাব করেই করোনা ভ্যাকসিন পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং তা বিনামূল্যেই পাঠিয়েছেন। আর মানুষের কাছে সেই ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে রাজ্য সরকারের মাধ্যমে। কিন্তু এদিকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী সমানে মিথ্যে কথা বলে চলেছেন। তিনি সবাইকে চিঠিতে লিখে জানাচ্ছেন- রাজ্য সরকার বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিচ্ছে। যেখানে আগে থাকতেই কেন্দ্র সরকার সকলের জন্য বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পাঠিয়ে দিয়েছে, সেখানে এর থেকে বড় মিথ্যে কথা আর কিইবা হতে পারে। একজন সাংবিধানিক পদে থেকে এভাবে ভুল বার্তা দেওয়া কখনই উচিত নয় মুখ্যমন্ত্রীর’।

Back to top button