টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

বিজেপি ভোগী, সিপিএম লোভী তবে তৃণমূল ত্যাগীঃ বললেন মমতা ব্যানার্জী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনা আবহে দীর্ঘ ৮ মাস পর বাঁকুড়াতে প্রথম জনসভা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী (Mamata Banerjee)। বাঁকুড়ার শুনুকপাহাড়ির জনসভায় দাঁড়িয়ে একসঙ্গে বিজেপি এবং বামেদের তীব্র ভাষায় আক্রমণ করলেন তৃণমূল নেত্রী। সেইসঙ্গে বিজেপির দিকে ছুঁড়ে দিলেন ওপেন চ্যালেঞ্জ।

সিপিএমের হার্মাদ এখন বিজেপি হার্মাদ, মমতার আক্রমণ
সভায় দাঁড়িয়ে প্রকাশ্যে গর্জে উঠলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জী। বাঁকুড়ার মানুষের পুরনো অত্যাচারের কথা টেনে এনে তিনি বললেন, ‘বাঁকুড়ার মানুষ এখন আগের থেকে অনেক শান্তিতে রয়েছেন। আগে সিপিএমের অত্যাচারে বহু মানুষ ঘর ছাড়া ছিলেন, এমনকি জঙ্গলমহলের মানুষ আতঙ্কে থাকতেন। সেসব দিনের কথা কি ভুলে গিয়েছে? ওঁরা কিন্তু আপনার সব লুট করে নেবে। শুধুমাত্র রঙটার পরিবর্তন হয়েছে। সেদিনের সিপিএমের হার্মাদরা আজ বিজেপির হার্মাদে পরিণত হয়েছে’।

কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন বিরোধীদের
সভা থেকেই বিজেপির দিকে ওপেন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে মমতা ব্যানার্জী বলেন, ‘সারদা নারদার ভয় দেখিয়ে ক্ষমতা থাকলে জেলে ভরতে পার, সেখান থেকেই আমরা জিতে দেখিয়ে দেব। সিপিএম একটা লোভী দল, বিজেপি হল ভোগী, কিন্তু তৃণমূল ত্যাগী। বাঁকুড়ায় একটা আসনও বিরোধিদের দখলে যাবে না। বিজেপি শুধু মানুষকে বোকা বানায়, মিথ্যার ডাস্টবিন ওঁরা। বিজেপি-সিপিএম-কংগ্রেস আগামী দিনে রাজ্য থেকে নির্মূল হয়ে যাবে’।

সমালোচনা করলেন কেন্দ্রেরও
বিরোধীদের আক্রমণ করতে করতে কেন্দ্রের সমালোচনা করতেও বাদ রাখলেন না তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জী। দৃপ্ত কন্ঠে বলে উঠলেন, ‘এই কেন্দ্র সরকার দেশে ৮০ শতাংশ বেকারত্ব বাড়িয়েছে। ডিএ বন্ধ করে দিচ্ছে, কয়লা খনিও বেঁচে দিচ্ছে। কিন্তু আমরা কারো বেতন বন্ধ করিনি। সঠিক সময়ে বেতন, পেনশন দিচ্ছি। রাজ্যে বেকারত্ব কমিয়েছি ৪০ শতাংশ’।

Back to top button