আন্তর্জাতিকটাইমলাইনভারত

নেপাল গিলে ফেলার চেষ্টায় বিস্তারবাদী ড্রাগন চীন, ভারতকে ঘিরতে করছে পরিকল্পনা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ চীন (China) সরকার নেপালে (Nepal) তাঁদের আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে এগোচ্ছে। গতবছরই ম্যান্ডারিন ভাষা শিক্ষা বাধ্যতামূলক করতে শিক্ষকদের বেতনও দিয়ে দিয়েছে। পাশাপাশি হিমালয় দেশটির অনেক বেসরকারী স্কুলে শিক্ষার্থীদের এই ভাষা শিখতে বাধ্যতামূলক করেন।

ভারত দ্বারা বয়কট হয়ে চীন সরকার এখন নেপালকে টার্গেট করেছে। তাঁদেরকে নিজের দলে টেনে, ভারতের বিরুদ্ধে শক্তিজোট গঠন করতে চাইছে। অর্থের লোভ দেখিয়ে নেপালকে নিজেদের কুক্ষিগত করে ভারতের বিরুদ্ধে হামলার ছক কষে চলেছে।

বেতন দিয়ে দেয় চীন সরকার
বর্তমান বিশ্বে চীনকে সকলে বয়কট করতে শুরু করেছে। এই অবস্থায় চীন সরকার তাঁর আধিপত্য বিস্তারের জন্য নেপালকে সঙ্গী করে, ভারতের বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে। এই অবস্থায় চীন সরকার নিজ অর্থ ব্যয়ে শিক্ষকদের বেতন দিয়ে নেপালে ম্যান্ডারিন ভাষার ব্যবহারও বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে।

ম্যান্ডারিন পাঠের বিপক্ষে CDC
CDC-এর রিপোর্ট অনুসারে, সরকারী সংস্থা স্কুল-স্তরের একাডেমিক পাঠ্যক্রম ডিজাইন করে, নির্দেশিকা জারী করে নেপালের স্কুলগুলিকে বিদেশী ভাষা শেখানোর অনুমতি দিতে পারে। তবে তারা শিক্ষার্থীদের শিক্ষার ক্ষেত্রে তা বাধ্যতামূলক করতে পারে না। কিন্তু তা সত্ত্বেও চীন সরকার সেখানে তাঁদের আধিপত্য বিস্তারে এগোচ্ছে।

ভারতের বিপক্ষে করছে বিভিন্ন দেশকে
মালদ্বীপ এবং মালেয়শিয়াকেও কাজে লাগিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে চীন। মোটা অর্থের লোভ দেখিয়ে ভারতে চারপাশের দেশগুলোকে নিজের দলে টানতে চাইছে চীন সরকার। নেপালকে অস্ত্র হিসেবে কাজে লাগিয়ে ভারতকে কোণঠাসা করার চেষ্টায় নেমেছে। যে নেপালকে এক মাস আগে ভারত বিনামূল্যে হাইড্রোক্সক্লোরোকুইন দিয়েছিল সেই দেশকেই এখন ভারতের বিরুদ্ধে কাজে লাগাচ্ছে চীন। এমনকি খাদ্যদ্রব্য থেকে শুরু করে পানীয় জলের সরবহার করা মালদ্বীপকেও চীন ভারতের বিরুদ্ধে কাজে লাগাচ্ছে।

Back to top button