টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভাইরালরাজনীতিকলকাতা

মদন মিত্রের কোলে ঢলে পড়া ছবি দিয়ে হয়েছিলেন ভাইরাল, এবার মুখ খুললেন তরুণী

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সম্প্রতি স্যোশাল মিডিয়ায় তুমুল ভাইরাল হয় মদন মিত্রের একটি ছবি। ছবিটিতে কামারহাটির বিধায়কের বাহুলগ্না হয়ে বসে থাকতে দেখা যায় এক তরুণীকে। মদন মিত্রের অন্য হাতে ধরা হুক্কা, জামার একটি বোতামও খোলা তাঁর। এহেন ছবি সামনে আসতেই মুহুর্তেই ভাইরাল হয় তা। বিতর্ক শুরু হয় রাজ্যজুড়ে। আর এর পরই এই ব্যাপারে মুখ খুললেন তরুণী। ‘মদন মিত্রকে বদনাম করার জন্যই এসব করা হচ্ছে’ এহেন অভিযোগে এনে সমস্ত বিতর্কে জল ঢাললেন তিনি।

জানা যাচ্ছে, ছবিতে মদন মিত্রের সঙ্গে থাকা ওই তরুণীর নাম অন্বেষা ঘোষ। একটি জন্মদিনের পার্টিতে গিয়েই এই ছবিটি তোলেন তিনি। তারপর ক্যাপশনে ‘ওহ লাভলি’ এবং মদন মিত্রের নামে পাশে একটি হৃদয় ও হাসির ইমোজি দিয়ে পোস্ট করেন নিজের স্যোশাল মিডিয়ায়। আর তারপরই ঝড়ের বেগে ছড়িয়ে পড়ে সেই ছবি।

এদিন একটি লাইভ ভিডিওতে ওই তরুণী বলেন, ‘মদন স্যারকে বদনাম করার জন্যই এগুলি করা হচ্ছে। আমার এক বন্ধুর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে গিয়ে স্যারকে (মদন মিত্র) দেখে তাঁর সঙ্গে ছবি তুলি আমি। আমাদের টেবিলে তাঁকে বসতে বলেই ছবিটি তোলা হয়েছিল। স্যার অনেক ভালো কাজ করেছেন। ভীষণ ভালো মানুষ তিনি। সেলিব্রিটিদের সঙ্গে সবাই ছবি তোলেন। কিন্তু আমার ছবিটিকে নিয়ে অহেতুক বিতর্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে।’ নিজেকে মদন মিত্রের ভক্ত বলেও দাবি করেছেন অন্বেষা। একই সঙ্গে তাঁর ছবি ব্যবহার করে অস্বস্তিকর ভিডিও বানানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। পুরো ব্যাপারটি যাতে থেমে যায় লাইভে এসে সেই অনুরোধই করতে দেখা গেল তরুণীকে। বিষয়টির ব্যাপারে আইনি পদক্ষেপ নিয়েছেন, এমনটাই জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, এই ছবি প্রসঙ্গে মদন মিত্র জানিয়েছিলেন, রোজ কয়েক হাজার ছবি ওঠে তাঁর। মহিলারা ছাড়াও ছবি তোলেন হাজার হাজার যুবক। কিন্তু সেই সমস্ত ছবি ভাইরাল হয় না। এমনকি ওই তরুণীকে নিজের নাতনির বয়সী বলেও দাবি করেন তৃণমূলের কালারফুল বয়। এরপর এই ইস্যুতে এবার সরব হতে দেখা গেল তরুণীকেও। উল্লেখ্য, স্যোশাল মিডিয়া থেকে বিরতি নিয়েছেন মদন। আগামী ৬ মাস কোনোরকম স্যোশাল মিডিয়াই ব্যাবহার করবেন না তিনি এমনটাই জানিয়েছেন কামারহাটির বিধায়ক।

Related Articles

Back to top button