টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

সুখবর দিল বিজ্ঞানীরা, এক বিশেষ ধরনের গ্যাসে খতম করা যাবে করোনা ভাইরাস

Bangla hUnt Desk: করোনা ভাইরাসের সাময়িক প্রতিরোধকারী হিসাবে এবার উঠে এল ওজোন গ্যাসের (Ozone) নাম। সমগ্র বিশ্বই বর্তমানে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়ার চেষ্টা করে চলেছে। গোটা বিশ্ব থেকে কবে নির্মূল হবে এই রোগ? এই প্রশ্নের উত্তর কারো কাছে নেই। তাই প্রতিদিনই মৃত্যু ভয় হাতে নিয়েই মানুষ নিজেদের দৈনন্দিন জীবনের কাজে নিয়োজিত রয়েছেন।

কিভাবে নিস্ক্রিয় হবে করোনা?
সমগ্র বিশ্বের বিজ্ঞানীরা এই মহামারির প্রতিষেধক আবিষ্কারের কাজে নিয়োজিত রয়েছে। তবে এর মধ্যে রাশিয়া সাফল্য লাভ করলেও, বাকি দেশগুলোতে এখনও চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল চলছে। তবে এরই মধ্যে জাপানের বিজ্ঞানীরা (Japanese scientist) দিল এক অদ্ভুত সংবাদ। ওজোন গ্যাসে নিস্ক্রিয় হবে এই মহামারি করোনা ভাইরাস।

জাপানের বিজ্ঞানিদের মতামত
জাপানের বিজ্ঞানীরা রীতিমত হাতে প্রমাণ নিয়েই একথা বলছেন। ফুজিটা হেলথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, ১-৬পিপিএম বেশি ঘনত্বযুক্ত ওজন গ্যাস মানুষের পক্ষ ক্ষতিকারক। কিন্তু কম ঘনত্ব যুক্ত ওজোন গ্যাস অর্থাৎ ওজন গ্যাসের ঘনত্ব পার্টস পার মিলিয়ন ০.০৫-০১ হয়, তাহলে তা মানুষের পক্ষে ক্ষতিকারক তো হবেই না, উল্টে করোনা ভাইরাসকে নিস্ক্রিয় করতে সক্ষম হবে। অর্থাৎ কম ঘনত্ব যুক্ত ওজোন গ্যাস মানুষের ক্ষতি না করে, করোনা ভাইরাসকে শেষ করতে পারে।

কিভাবে ব্যবহৃত হবে এই গ্যাস
এই বিষয়টিকে পরীক্ষা করবার জন্য বিজ্ঞানীরা বেশি জনসংখ্যার একটি ঘরে ওজোন জেনারেট ব্যবহার করেছিলেন। পরীক্ষার ফলাফলে জানা গেছে, প্রায় ১০ ঘণ্টা পরে ওই ঘরে প্রায় ৯০ শতাংশ করোনা ভাইরাস নিঃশেষ হয়ে গেছে। তাই বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছে, যেসব জায়গায় একসঙ্গে অনেক মানুষ একত্রিত হন, সেই সব জায়গায় স্বল্প ঘনত্বে ওজোন গ্যাস প্রয়োগ করলে, মানুষের কোন ক্ষতি না হয়ে করোনা ভাইরাসকে নির্মূল করা যাবে।

ওজোন গ্যাস প্রয়োগের এই প্রক্রিয়া ইতিমধ্যেই মধ্য জাপানে আইচি প্রদেশে ফুজিটা মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালে ব্যবহার করা হয়েছে। হাসপাতালের একাধিক ওয়ার্ড ও ওয়েটিং রুমে এই ওজোন জেনারেট স্থানপন করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button