টাইমলাইনভারত

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড জায়গা করে নিলেন এক যুবক, দাঁড় করালেন ডিমের উপর ডিম

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ডিম (Egg) আগে না মুরগি আগে, এই সংশয়ে রয়েছে সকলেই। কিন্তু একটি ডিমের উপর আর একটি ডিম সাজিয়ে যে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে (Guinness World Records) নিজের নাম প্রতিষ্ঠা করা যায়, তা দেখিয়ে দিল মহম্মদ আবেলহামীদ মুকবেল (Mohammed Abelhameed Muqbel)। অনায়াসেই একটি ডিমের উপর দাঁড় করিয়ে দিল আরও একটি ডিম।

গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড
গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড, এই তালিকায় নিজের নাম অন্তর্ভুক্ত করা কিন্তু খুব সহজ কাজ নয়। যথেষ্ট পরিশ্রম এবং কষ্ট সাধ্য বিষয় কিন্তু এটি। তবে খুব সামান্য একটি বিষয়কে পাথেয় করে যে এই গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নিজের নাম তোলা যায়, তা প্রমাণ করে দিল মালয়েশিয়ার কুয়ালা লামপুরে বাসিন্দা মহম্মদ আবেলহামীদ মুকবেল। তিনটি ডিম দিয়েই করলেন তাঁর যোগ্যতার প্রমাণ।

দাঁড় করালেন ডিমের উপর ডিম
যখন সমতল ভূমিতে একটি ডিম সোজা ভাবে দাঁড় করাতে মানুষের কাল ঘাম ছুটে যায়, সেখানে আবেলহামীদ একটির উপর একটি করে দাঁড় করালেন মোট তিনটি ডিম। তাও আবার কোন কিছুর সাহায্য ছাড়াই। রাখলেনও বেশ কিছুক্ষণ। এই অসম্ভব কাজের ভিডিও নেটদুনিয়ায় প্রকাশ পেতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়।

পূরণ করলেন সমস্ত শর্ত
মাত্র ছ’ বছর বয়স থেকেই ব্যালান্সের খেলায় ধীরে ধীরে পারদর্শী হতে থাকে আবেলহামীদ। নিজের যোগ্যতা বলে মাত্র ২০ বছর বয়সেই নাম তুললেন গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে। এপ্রিল মাসেই তিনি করে ফেলেন এই কৃতিত্ব, দাঁড় করালেন ডিমের উপর ডিম। এই ঘটনাটি গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডের তরফ থেকে সম্পূর্ণ যাচাই করে তবেই তাঁর নাম তালিকায় নথিভুক্ত করা হয়েছে। তবে তাঁদের কয়েকটি শর্ত ছিল, টাটকা ডিম হতে হবে, অবশ্যই তা ভাঙা বা ফাটা হলে চলবে না এবং সাজানো অবস্থায় ডিমগুলিকে অন্তত পাঁচ সেকেন্ড রাখতে হবে।

জানলেন অভিজ্ঞতার কথা
সমস্ত রকম শর্ত মেনে নিয়ে পাসও করে গেলেন আবেলহামীদ। জানালেন, এই কাজের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল প্রত্যেকটি ডিমের ভরকেন্দ্রকে একটি সরলরেখায় আনতে হবে। সেভাবেই দিনের পর দিন দীর্ঘ অধ্যাবসায় এবং মনের জোরে তিনি এই কাজে সফল হয়েছেন।

Related Articles