ক্রিকেটখেলাটাইমলাইন

দেশজুড়ে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ার ফলে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গেল আইপিএল।

আজ শুভ নববর্ষ, বছরের প্রথম দিন। আর বাংলা বছরের প্রথম দিনে দেশের প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী এই মুহূর্তে দেশের পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে লকডাউনের মেয়াদ 3 ই মে পর্যন্ত করে দিয়েছেন। আর এর ফলে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গেল বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট লিগ আইপিএল। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সূত্রে জানা গিয়েছে এই মুহূর্তে দেশে লকডাউন এর মেয়াদ বাড়ানোর জন্য আইপিএল নিয়ে আর কোন প্রকার আলোচনা হচ্ছে না। এবার যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার সেটি 3 ই মে এর পরেই নেওয়া হবে।

এই বছর আইপিএল শুরু হওয়ার কথা ছিল 29 শে মার্চ থেকে। কিন্তু দেশজুড়ে করোনা তাণ্ডব বাড়ার ফলে 15 ই এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত রাখা হয়েছিল আইপিএল। কিন্তু এই মুহূর্তে দেশের পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে আর সেই কারণেই ভারত সরকার লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে 3 ই মে পর্যন্ত করে দিয়েছে। আর এমন পরিস্থিতিতে আইপিএল হওয়ার সম্ভাবনা আরো কমে গেল। যদি 3 ই মে এর পর লকডাউন উঠে যায় তবুও সেই সময় আইপিএল করা কি আদেও সম্ভব? এই এবারে পর্যালোচনা করবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

কয়েকদিন আগেই বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি সাংবাদিক সম্মেলনে এসে বলেছিলেন যে এই মুহূর্তে সারা বিশ্ব যে পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে তাতে কোন দেশেই কোন প্রকার টুর্নামেন্ট আয়োজন হচ্ছে না। সেই জায়গা থেকে এবার আমাদের আইপিএল ভুলে যাওয়াই ভালো। কিন্তু আইপিএল যদি না হয় তাহলে বিসিসিআই এবং আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি গুলি সকলেই এক বিরাট আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে সেই কথা মাথায় রেখে এখনই আইপিএল বাতিল ঘোষণা করতে পারছে না বিসিসিআই। বিসিসিআইয়ের এক কর্তা জানিয়েছেন কোনো কারণে যদি অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে যায় তাহলে সেই সময়ে আইপিএল হতে পারে।

Back to top button