fbpx
আন্তর্জাতিকটাইমলাইনভারত

মাস্ক ব্যবহার না করায় নিস্তার নেই খোদ প্রধানমন্ত্রীরও, দিতে হল ১৪ হাজার টাকা জরিমানা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী (Prime Minister) বলেও পেলেন না ছাড়, দিতে হল জরিমানাও। গুনে গুনে প্রায় ১৪ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হল তাঁকে। অপরাধ- মাস্ক (Mask) পড়েননি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) মঙ্গলবার জাতীর উদ্দ্যেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে এই ঘটনার বিবরণ দিলেন দেশবাসীকে। প্রধানমন্ত্রী বলে, তাঁর জন্য একরকম নিয়ম, এবং সাধারণ মানুষের জন্য আলাদা সেটা যে সম্পূর্ণ ভুল, তা প্রমাণ করে দিল এই দেশ।

প্রধানমন্ত্রীর জাতির উদ্দ্যেশ্যে ভাষণ
করোনা ভাইরাসের সংকটের মধ্যে লকডাউন পরবর্তী সমগ্র ভারত জুড়ে চালু হয়েছিল আনলক-১। সেই সময়কালের শেষ লগ্নে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশবাসীর উদ্দ্যেশ্যে ভাষণ দিয়ে আনলক-২ এর সূচনা করলেন। এই ক্ষেত্রেও থাকছে কিছু করোনা সতর্কীকরণ। সেই সঙ্গে জানালেন কিছু নিয়মের সঠিক প্রয়োগ।

মাস্ক ব্যবহার না করলে দিতে হবে জরিমানা
দেশবাসীকে করোনা রক্ষার্থে মাস্ক ব্যবহারের বিষয়ে উদাহরণ দিতে গিয়ে বুলগেরিয়ার প্রধানমন্ত্রী বোকোকো বোরিসভের (Boyko Borissov) কথা উল্লেখ করলেন। তিনি বললেন, একজন প্রধানমন্ত্রী হওয়া সত্ত্বেও মাস্ক ব্যবহার না করার জন্য তাঁকে অবধি দিতে হয়েছিল জরিমানা। বুলগেরিয়াতে করোনা প্রকাশ পাওয়ার পর থেকেই মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতা মূলক করা হয়েছিল। কিন্তু নাগরিকদের অবহেলার কারণে মাস্ক ব্যাবহার না করলে জরিমানার নিয়ম জারী করে সরকার।

ছাড় পেলেন না প্রধানমন্ত্রীও
কিন্তু যে মাসে এই নিয়ম চালু হয়, ঠিক সেই মাসেই বুলগেরিয়ার প্রধানমন্ত্রী বোকোকো বোরিসভ একটি গির্জার বিনা মাস্কেই চলে যান। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী বলে ছাড় পাননি তিনিও। গুনে গুনে প্রায় ১৪ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হয় তাঁকে। এই ঘটনার মাধ্যমে সকল দেশবাসীকে নিজের এবং দেশের রক্ষার্থে মাস্ক ব্যবহারের কথা আবারও স্মরণ করিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

সতর্ক হতে হবে নাগরিকদের
প্রধানমন্ত্রী সেই সঙ্গে আরও বললেন, করোনা নিয়ে আমাদের সকলকে সচেতন হতে হবে। বিশেষত কন্টেইনমেন্ট জোনগুলোতে আরও বেশি করে সতর্ক থাকতে হবে নাগরিকদের। মাস্ক ব্যবহার, স্যানেটাইজার দিয়ে হাত ধোয়া, এবং সেই সঙ্গে সামাজিক দূরত্বও মান্য করতে হবে।

Back to top button
Close
Close