টাইমলাইনভারত

করোনার বিরুদ্ধে মোকাবিলা করার জন্য সমস্ত পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ রাখার নির্দেশ দিল যোগী সরকার

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনাভাইরাস (Coronavairas) খুব দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে চারিদিকে। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই এই ভাইরাস ভারতে (India) ছড়িয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৪২ এবং ইতিমধ্যেই মারা গেছেন ৩ জন। এই পরিস্থতিতে উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh) সরকার এক নতুন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। রাজ্যে আগামী ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত সমস্ত পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করা হয়। ২ রা এপ্রিল অবধি স্কুল কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এবং এর পাশাপাশি কোন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে সরকারী পক্ষ থেকে বিনা খরচায় চিকিৎসার কথাও বলা হয়।

মারণরোগ করোনাভাইরাসের জন্য সরকার গরীব দুঃস্থ মানুষদের আর্থিক সাহায্যেরও আশ্বাস দিয়েছেন। যোগী সরকারের মন্ত্রী শ্রীকান্ত শর্মা বলেন, ‘রাজ্যে এক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি রাজ্যের গরিব মানুষদের আর্থিক সাহায্য করবে। এই ফাণ্ডের টাকা সরাসরি গরীব মানুষদের খাতে RTGS মাধ্যমে দেওয়া হবে’।

করোনা ভাইরাসের প্রকোপের কথা মাথায় রেখে উত্তরপ্রদেশ সরকার বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। সেগুলো হল- ১) আগামী ৩১ শে মার্চ অবধি সমস্ত পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ রাখা হবে। ২) আগামী ২ রা এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হবে। ৩) বেশি মানুষের সমাগম  হতে পারে এমন কোন অনুষ্ঠান করা যাবে না। ৪) জনস্বার্থের ভিত্তিতে ধার্মিক স্থানেও একসঙ্গে বেশি মানুষ জমায়েত হওয়া যাবে না।

৫) উত্তরপ্রদেশে কোন প্রদর্শন বা অনুষ্ঠান করা যাবে না। ৬) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসার জন্য কোন রূপ অর্থ নেওয়া যাবে না। ৭) মুখ্যমন্ত্রীর সব দফতর থেকে পরিছন্নতার ওপর জোর দিতে হবে। ৮) রাজ্যে সব ধরণের পরীক্ষা এখন বন্ধ রাখা হবে। ৯) সরকারী কর্মীদের ক্ষেত্রে ঘরে বসে কাজ করার সিদ্ধান্তও নেওয়া যেতে পারে। ১০) বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকেও আর্জি জানানো হচ্ছে ঘরে বসে কাজ করার অনুমতি দেওয়ার জন্য।

এখনও অবধি উত্তরপ্রদেশে করোনা (COVID-19) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ জন। শুধুমাত্র উত্তরপ্রদেশই নয়। দিল্লী, বিহার, মধ্যপ্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, মহারাস্ট্রতেও স্কুল কলেজ, সিনেমা হল, শপিং মল বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

Related Articles