টাইমলাইনভারতরাজনীতি

‘ভারত মাতা কি জয়’ বলায় মঞ্চ থেকে টেনে নামানো হল তরুণীকে, ‘তালিবানি সংস্কৃতি’ চলবে না বললেন বিজেপি বিধায়ক

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ‘ভারত মাতা কি জয়’ (bharat mata ki jai) বলার জন্য চরম সাজা পেতে হল একটি মেয়েকে। অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে তাঁকে নামিয়ে, ধর্মীয় শ্লোগান দিতে বাধ্য করা হল। এই গোটা ঘটনার প্রতিবাদে গর্জে উঠে দোষীদের শাস্তির দাবী জানালেন বিজেপি (bjp) বিধায়ক মালিনী গৌর।

ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে (indore)। সেখানে রাজওয়াডে এলাকায় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই নক্কার জনক ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। স্যোশাল মিডিয়ায় সেই দৃশ্যের ভিডিও ভাইরাল হতেই, প্রতিবাদে সোচ্চার হন বিজেপি বিধায়ক।

national flag

জানা গিয়েছে, ওই অনুষ্ঠানে মঞ্চের উপর জাতীয় পতাকা লাগানো ছিল। সঙ্গে ছিল মঞ্চের উপরে থাকা ব্যানারে, বিজেপি নেতাদের ছবিও লাগানো ছিল। সেই মঞ্চে দাঁড়িয়ে ওই মেয়েটি সন্ত্রাসবাদীদের শিক্ষা দেওয়ার কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে ভারত মাতা কি জয় এবং জয় জয় শ্রীরাম ধ্বনিও দেয়। আর তারপরই ওই মেয়েটিকে মঞ্চ থেকে নামিয়ে হেনস্থা করা হয়।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, ওই মেয়েটিকে মঞ্চ থেকে নামিয়ে ধমক দিচ্ছেন বেশ কয়েকজন। এই ভিডিও দেখার পর, প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন বিজেপি বিধায়ক মালিনী গৌর। তিনি অবিলম্বে দোষীদের শাস্তির দাবি জানান।

তিনি বলেন, ‘এটা অত্যন্ত লজ্জাজনক একটা ঘটনা। আমি এই ঘটনার ভিডিও দেখেছি। ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলার জন্য মেয়েটিকে যেভাবে মঞ্চ থেকে টেনে নামানো হল, এই ধরণের তালিবানি সংস্কৃতি এখানে চলবে না। এই ভারতবর্ষে থাকতে হলে ‘ভারত মাতা কি জয়’, ‘বন্দে মাতরম’ ধ্বনি দিতেই হবে, নাহলে তাঁদের দেশ থেকে বহিস্কার করে দেওয়া হবে’।

Related Articles

Back to top button