টাইমলাইনলাইফস্টাইল

পুজোয় ব্যবহৃত শঙ্খ বাজানোর রয়েছে নানা উপকারিতা, জেনে নিন গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয়

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ পুজোর কাজে বা যেকোন শুভ অনুষ্ঠানে শঙ্খ (Conch) বাজানো হয়। এই শঙ্খ বা শাঁখ বাজানোকে মঙ্গলের চিহ্ন হিসাবে ধরা হয়। অনেক গৃহস্থ বাড়িতে প্রতিদিন সন্ধ্যের সময় প্রদীপ জ্বালিয়ে শঙ্খ বাজানো হয়। তবে শুধুমাত্র একটি মঙ্গলের চিহ্ন স্বরূপ নয়, শঙ্খ বাজানোর কিন্তু নানা উপকারিতাও রয়েছে।

শঙ্খ বাজানোর সময় পবিত্র শব্দ ‘ওম’ উচ্চারিত হয়।

শঙ্খ বাজানোর সময় আমাদের শ্বাস প্রশ্বাসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়। এতে করে দম ধরে রাখার ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।

বিজ্ঞান ব্যাখ্যা, শঙ্খ বাজালে মানুষের হার্ট ভালো থাকে।

অনেক সময় আমরা সিনেমা সিরিয়ালে দেখেছি কিংবা পুরাণে পড়েছি শঙ্খ বাজিয়ে যুদ্ধের শুভারম্ভ বা নতুন কাজের সূচনা করা হয়। এর ফলে মানুষের মনে সাহস, আশা, ইচ্ছেশক্তি, দৃঢ়তা অনেকটাই বেড়ে যায়।

হিন্দু দেবদেবী, যেমন- গণেশ, বিষ্ণু, লক্ষ্মী, কৃষ্ণ, বালাজি, সরস্বতীর সঙ্গে শঙ্খ থাকতে দেখা যায়।

এই সময় যাবতীয় দুশ্চিন্তা মাথা থেকে সরে যায়।

অনেক সময় শঙ্খ বাজানোর ফলে তোতলামির সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়।

সকালে শঙ্খের মধ্যে জল রেখে তা পরদিন সকালে মুখে মাখলে, ত্বক এলার্জি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

শঙ্খ বাজানোর ফলে চারিপাশের অশুভ শক্তির বিনাশ ঘটে শুভ শক্তির সঞ্চার হয়। পজেটিভ এনার্জির আগমন হয়।

Back to top button