টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

কোটি কোটি টাকা কামানো এই ৭ ক্রিকেটার করেন সরকারি চাকরি, লিস্টে রয়েছে অবাক করা নাম

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক:  ভারতে ক্রিকেটারদের যে আসনে রাখা হয়, অন্য কোনও দেশে তা করা হয় কি? একসময় হকি ভারতের জাতীয় ও সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা হলেও বিংশ শতাব্দীর শেষ দশক থেকেই ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা হকি সব বাকি খেলাগুলিকে কয়েকশো মাইল পেছনে ফেলে এগিয়ে গেছে। দেশের সবচেয়ে প্রিয় খেলা যে এখন ক্রিকেট তা খেলাধুলার থেকে শতহাত দূরে থাকা একজন মানুষও বলে দিতে পারবেন। তাই ভক্তদের প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম্যান্স করতে নিজেদের পুরোপুরি ক্রিকেটে ডুবিয়ে রাখতে হয় ক্রিকেটারদের। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না, তারপরেও কিছু ভারতীয় ক্রিকেটার গুরুত্বপূর্ণ সরকারি দপ্তরে নিজের দায়িত্ব পালন করে থাকেন। এই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হবে এমনই কিছু ক্রিকেটারের নাম যারা দেশের হয়ে চুটিয়ে ক্রিকেট খেলার সাথে সাথে পালন করেছেন সরকারি চাকরিতে নিজের দায়িত্ব।

১. লোকেশ রাহুল
২০১৪ সালে তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়, কে এল রাহুলের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের শুরুটা যেন স্বপ্নের মতো হয়েছিল এমন নয়। তাই প্রথম দিকে বেশ কিছুটা সময় অনেক সংগ্রামের মধ্য দিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। সেই সময় তার প্রতিভার পুরস্কার স্বরূপ ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তৎকালীন গভর্নর এসএস মুন্ধরার সুপারিশে, আরবিআই তাকে সহকারী ব্যবস্থাপক হিসাবে নিয়োগ করেছিল।

২. যোগিন্দর শর্মা
প্রথম টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে তার বোলিং হয়তো এখনও ভুলে যায়নি ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু জানেন কি সেটাই ছিল তার দেশের হয়ে খেলা শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। তারপর তার হাতে আসে ২১ লক্ষ টাকা এবং হরিয়ানা পুলিশে চাকরি। বর্তমানে ৪০ ছুঁইছুঁই যোগিন্দর কাজ করেন ডেপুটি সুপারিনটেনডেন্ট হিসাবে। আর কোনওদিনই ক্রিকেটের ময়দানে ফেরা হয়নি তার।

৩. কপিল দেব
১৯৮৩ বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় অধিনায়কের ক্রিকেট কেরিয়ার নিয়ে আর নতুন কিছু বলার নেই। ভারতে যে আজ ক্রিকেট এত জনপ্রিয় তার অন্যতম কারণ তিনিও বটে। ২০০৮ সালে তাকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফ থেকে সদস্য করে নেওয়া হয়। তাকে লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদে সম্মানিত করা হয়। প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসাবে এই সম্মান অর্জন করেন তিনি।

৪. উমেশ যাদব
বিদর্ভের এই ক্রিকেটার ২০১১ সালে নিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলার সুযোগ পান। কিন্তু জানেন কি একসময় সরকারি চাকরি খুঁজছিলেন উমেশ… হ্যাঁ, এই তারকা ক্রিকেটার একসময় পুলিশ কনস্টেবল হতে চেয়েও পারেননি। কিন্তু ২০১৭ সালে আরবিআই তাকে স্পোর্টস কোটায় নিযুক্ত করেন সহকারী ম্যানেজার হিসাবে। এখনও সেই পদ বজায় আছে তার।

 

৫. যজুবেন্দ্র চাহাল
২০১৬ সাল নাগাদ ভারতীয় ক্রিকেটে শুরু হয়েছিল কুল-চা যুগ। তারপরের ২-৩ বছরে চাহাল কুলদীপের বিষাক্ত লেগস্পিন যে কত ব্যাটসম্যানদের সমস্যায় ফেলেছিল, তার কোনও হিসাব নেই। কিন্তু সেই যজুবেন্দ্র চাহাল-ও করেছেন সরকারি চাকরিও। ২০১৮ সালে যজুবেন্দ্র চাহাল-কে ইনকাম ট্যাক্স ডিপার্টমেন্ট তাকে ইনকাম ট্যাক্স অফিসার পদে নিয়োগ করেন।

৬. সচিন টেন্ডুলকার-
বিশ্বের সবচেয়ে সফল এবং উঁচুমানের ক্রিকেটারদের মধ্যে সবার আগে আসে সচীন টেন্ডুলকারের নাম। সচীনকে তার সাফল্যের জন্য ভারতীয় বায়ুসেনার মতো সম্মানিত করা হয়েছিল এবং ২০০০ সালে, শচীনকে ভারতীয় বিমান বাহিনীর গ্রুপ ক্যাপ্টেন করা হয়েছিল।

৭. হরভজন সিং
টিম ইন্ডিয়ার সবচেয়ে সফল স্পিন বোলারদের তালিকায় প্রথমের দিকেই আসে হরভজনের নাম। এই খেলোয়াড় টেস্টে ৭০০ টিরও বেশি উইকেট নিয়েছেন এবং এই অবদানের জন্য তাকে পাঞ্জাব পুলিশে ডিএসপি করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button