টাইমলাইনটাকা পয়সাভারত

টাটা গ্রূপের এই ৪ টি কোম্পানিতে লাগান টাকা, কয়েক মাসের মধ্যেই বেড়ে যাবে বহুগুণ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: গত দুই বছরে, মহামারীর কারণে বিশ্বের অর্থনীতি ধাক্কা খেলেও ভারতে প্রচুর সংখ্যক স্টক, মাল্টিব্যাগার স্টকের তালিকায় প্রবেশ করেছে। এমতাবস্থায়, শেয়ার বাজার থেকে আয়ের জন্য বিনিয়োগকারীদের আগ্রহও বেড়েছে।আপনি যদি স্টক মার্কেট থেকে আয় করার কথা ভাবেন এবং একটি ভালো মাল্টিব্যাগার স্টক খোঁজার পরিকল্পনা করেন, তাহলে বর্তমান প্রতিবেদনটি আপনার কাজে আসবে।

এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাকে টাটা গ্রুপের (Tata Group) বেশ কয়েকটি দারুণ স্টক সম্পর্কে জানাবো যা ইতিমধ্যেই এক বছরে দুর্দান্ত রিটার্ন দিয়ে বিনিয়োগকারীদের বিশ্বাস অর্জন করেছে। এই স্টকগুলি সম্পর্কে সাধারণ মানুষরা খুব একটা বেশি না জানলেও বিনিয়োগের পর রিটার্ন দেওয়ার ক্ষেত্রে এগুলির জুড়ি মেলা ভার। স্টকগুলি সম্পর্কে জেনে নিন বিস্তারিত।

১. Automotive Stampings & Assemblie: টাটা গ্রুপের এই স্টক গত এক বছরে প্রায় ১,৫০০% হারে বেড়েছে। এক বছর আগে, যেখানে অটোমোটিভ স্ট্যাম্পিং এবং অ্যাসেম্বলির শেয়ার ২০২১ এর ২২ জানুয়ারি ৩৫.৯৫ টাকায় বন্ধ হয়েছিল সেখানে চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি এটি হয়েছে ৬১৪.১০ টাকা । এক বছরের মধ্যে এই স্টকটি ১৫৬১.৯৮% রিটার্ন দিয়েছে। একজন বিনিয়োগকারী যদি এক বছর আগে এই কোম্পানিতে ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতেন, তাহলে তাঁর সেই টাকা আজ ১৭ লক্ষেরও বেশি হত।

এই কোম্পানিটি প্রাথমিকভাবে টাটা মোটরসের যাত্রী ও বাণিজ্যিক যানবাহনের জন্য শিট-মেটাল স্ট্যাম্পিং, ওয়েল্ডেড অ্যাসেম্বলি এবং মডিউল তৈরি করে। এছাড়াও, কোম্পানিটি জেনারেল মোটরস ইন্ডিয়া, ফিয়াট ইন্ডিয়া, পিয়াজিও, অশোক লেল্যান্ড, জেসিবি, টাটা হিটাচি এবং এমজি মোটরসের মতো শীর্ষস্থানীয় অটোমোবাইল কোম্পানির কাছে তার পণ্য বিক্রি করে।

২. Tinplate Company of India: টাটা টিনপ্লেটের শেয়ারও বিপুল হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বছরের ২১ জানুয়ারি এই শেয়ার ১৬৯.৬৫ টাকায় বন্ধ হয়েছিল কিন্তু, এই বছরের ২১ জানুয়ারি সেটি পৌঁছে গিয়েছে ৩৭১.৭০ টাকায়। এই সময়ের মধ্যে এই স্টকটি ১১৯.৮৮% রিটার্ন দিয়েছে। অর্থাৎ একজন বিনিয়োগকারী যদি এক বছর আগে এই স্টকটিতে ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন, তাহলে আজ তাঁর সেই টাকা ২.১৯ লক্ষ টাকায় পৌঁছে যেত।

এই কোম্পানিটি ভারতে টিনপ্লেটের বৃহত্তম প্রস্তুতকারক৷ টিনপ্লেট কোম্পানির দুটি প্রধান পণ্য হল টিনপ্লেট এবং টিএফএস, যা প্রক্রিয়াজাত খাবারের প্যাকেজিং নিয়ে কাজ করে। এছাড়াও, কোম্পানিটি ভোজ্য তেল, পেইন্ট, কীটনাশক, ব্যাটারি ইত্যাদি উৎপাদন করে। এটি টাটা স্টিলের একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান, যার ৭৪.৯৬% শেয়ার রয়েছে।

৩. Automobile Corporation of Goa Ltd: অটোমোবাইল কর্পোরেশন অফ গোয়া লিমিটেড, এই অটোমোবাইল কোম্পানিটির স্টক এক বছর আগে ছিল ৪৬৭.২৫ টাকা। সেই স্টকই চলতি মাসের ২১ জানুয়ারি ৯৫৮.৯০ টাকায় পৌঁছেছে। এই সময়ের মধ্যে স্টকটি ১০৫.২২% রিটার্ন দিয়েছে। অর্থাৎ যদি কেউ এক বছর আগে এই স্টকটিতে ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন, তাহলে সেই টাকা আজ ২.০৫ লক্ষ টাকা হত।

এই কোম্পানিটি গোয়াতে প্রতিষ্ঠিত প্রথম বড় ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিট কোম্পানি। ১৯৮০ সালে টাটা মোটরস এবং ইডিসি (পূর্বে গোয়া, দমন এবং দিউ-এর অর্থনৈতিক উন্নয়ন কর্পোরেশন নামে পরিচিত) দ্বারা যৌথভাবে তৈরি হয়েছিল। এটি টাটা মোটরসের পুনে কারখানায় প্রেসিং এবং অ্যাসেম্বলির একটি প্রধান সরবরাহকারী।

৪. Nelco: টাটা গ্রুপের এই স্টকটি ২০২১ এর ২২ জানুয়ারি ২১৭.৯০ টাকা থাকলেও বর্তমানে চলতি মাসের ২২ জানুয়ারি এটি ৮৪৪.৪০ টাকায় পৌঁছেছে। এই স্টকটি গত এক বছরে বেড়েছে ২৮৭.৫২%। এখানে একবছর আগে যদি কেউ ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন তাহলে সেটি এখন পৌঁছে যাবে ৩.৮৭ লক্ষ টাকায়।

এই কোম্পানিটি টাটা গ্রুপের একটি আইটি নেটওয়ার্কিং সরঞ্জামের স্টক৷ কোম্পানিটি প্রতিরক্ষা, রেলওয়ে, ইস্পাত, সিমেন্ট, অটোমোবাইল, তেল ও গ্যাস, কাগজ, সিরামিক এবং পরিষেবার মতো কিছু প্রধান শিল্পে সক্রিয়।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, টাটা গ্রুপের শেয়ারের বিষয়ে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে বিশেষ আগ্রহ রয়েছে। পাশাপাশি, টাটা গ্রুপের তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলো গত চার বছরে উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এই প্রসঙ্গে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে, প্রবীণ বিনিয়োগকারী রাকেশ ঝুনঝুনওয়ালা একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন যে, “আমি মনে করি, টাটার বাড়িটি হল ঈশ্বরের এক আশীর্বাদ!”

শেয়ার বাজারের বেশিরভাগ হেভিওয়েট বিনিয়োগকারীরা বিশ্বাস করেন যে, টাটা গ্রুপে বিনিয়োগ করা একটি লাভজনক ব্যাপার। মনে রাখবেন, স্টক সম্পর্কে এখানে দেওয়া তথ্য আপনার জানার জন্য দেওয়া হয়েছে। বিনিয়োগের আগে বিশেষজ্ঞের মতামত অবশ্যই নিন।

Related Articles

Back to top button