টাইমলাইনটাকা পয়সাসাফল্যের কাহিনিগ্যালারি

ব্যবসার দুনিয়ায় সারা পৃথিবীর পুরুষ কর্তাদের জোর টক্কর দিচ্ছেন এই ভারতীয় নারীরা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: একটি পুরুষতান্ত্রিক সমাজব্যবস্থায় নারীর ভূমিকা কেবল চার দেওয়ালের ভিতর। বহুদিন অবধি এমনটাই হয়ে এসেছে এবং সমাজে মেয়েদের জায়গা সম্পর্কে এটিই প্রচলিত ধারণা হয়ে গিয়েছিল। তবে এই ধারণার বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছেন বহু মহিলা। তাঁরা পুরুষতান্ত্রিক সমাজে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়ে সংগ্রাম করেছেন নিজেদের কাজের মধ্য দিয়ে। এই প্রতিবেদনে কথা বলব এমনই কয়েকজন ভারতীয় মহিলার কথা যাঁরা কেবলমাত্র মহিলাদের নিয়ে সমাজের ধারণাই বদলাচ্ছেন না, বরং পুরুষদেরও জোরদার টক্কর দিচ্ছেন। 

এই মহিলারা প্রত্যেকেই নিজেদের ক্ষেত্রে চূড়ান্ত সাফল্য অর্জন করেছেন (Women Entrepreneurs)। সবটাই নিজেদের কঠোর পরিশ্রম ও লড়াই চালিয়ে যাওয়ার মানসিকতা দিয়ে। এই সব ক্ষেত্রগুলিতে এক সময় পুরুষদেরই আধিপত্য ছিল। তবে সেই ধারণাই বদলে ফেলেছেন এই মহিলারা।

১. নমিতা থাপর

Namita Thapar

জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘শার্ক ট্যাঙ্ক ইন্ডিয়া’য় দেখা গিয়েছে নমিতা থাপরকে। তিনি হলেন চলতি বছরের ফোর্বস এশিয়া ম্যাগাজিনে সবচেয়ে সফল মহিলা ব্যবসায়ীদের তালিকায় নাম তোলা তৃতীয় ভারতীয়। পেশাগত দিক দিয়ে তিনি একজন চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট। একইসঙ্গে পুণেতে অবস্থিত ওষুধ সংস্থা ‘এমকিওর ফার্মা’র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর হলেন নমিতা। জানিয়ে রাখি, এই ওষুধের সংস্থাটির মূল্যায়ন হল ৭৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

নমিতার বাবা সতীশ মেহতা এই সংস্থা স্থাপন করেন। তিনি এই সংস্থার চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার হিসেবে ২০০৭ সালে যোগ দেন। ভারতে মহিলাদের স্বাস্থ্যে উন্নতি এবং যুবদের মধ্যে শিল্পোদ্যোগ দিয়ে কাজ করতে বিশেষ ভাবে আগ্রহী তিনি।

২. সোমা মন্ডল

Soma Mondal

ফোর্বস এশিয়া ম্যাগাজিনে সবচেয়ে সফল মহিলা ব্যবসায়ীদের তালিকায় দ্বিতীয় ভারতীয় মহিলা হলেন ‘স্টিল অথোরিটি অফ ইন্ডিয়া’র চেয়ারপার্সন সোমা মন্ডল। ভারতে তিনিই হলেন সংস্থার প্রথম মহিলা চেয়ারপার্সন। তিনি ১৯৮৪ সালে রৌরকেলার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে স্নাতক করেছিলেন। ধাতুবিদ্যা শিল্পে সোমার ৩৫ বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে। 

৩. গজল আলাগ

Ghazal Alagh

ফোর্বস এশিয়া ম্যাগাজিনে সবচেয়ে সফল মহিলা ব্যবসায়ীদের তালিকায় প্রথমে ভারতীয় মহিলার স্থানে রয়েছেন গজল আলাগ। তিনি ‘হোনাসা কনসিউমার’-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা। এই সংস্থারই একটি জনপ্রিয় ব্র্যান্ড হল ‘মামা আর্থ’। তাঁর সংস্থা চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে একটি ইউনিকর্ন সংস্থার তকমা পায়। ‘সেকোয়া ক্যাপিটাল ইন্ডিয়া’ গজলের সংস্থায় ৫২ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করে। এতে তাঁর সংস্থার মোট মূল্য গিয়ে দাঁড়ায় ১.২ বিলিয়ন ডলারে। স্বামী বরুণ সিংহের সঙ্গে মিলে ২০১৬ সালে গুরুগ্রামে এই সংস্থা চালু করেছিলেন গজল।

৪. দিব্যা গোকুলনাথ

Divya Gokulnath

২০২০ সালের ফোর্বস এশিয়া ম্যাগাজিনে সবচেয়ে সফল মহিলা ব্যবসায়ীদের তালিকায় রয়েছেন আরও এক ভারতীয় ব্যবসায়ী দিব্যা গোকুলনাথ। তিনি হলেন জনপ্রিয় এডু-টেক সংস্থা বাইজু’র সহ-প্রতিষ্ঠাতা। তিনি ও তাঁর স্বামী মিলে এই সংস্থা চালান। প্রসঙ্গত, বাইজু রবীন্দ্রনের মোট অর্থ ৩ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে।

৫. অঙ্কিতি বোস

Ankiti Bose

একটি ১ বিলিয়ন ডলার স্টার্ট আপের প্রথম মহিলা সহ-প্রতিষ্ঠাতা হলেন অঙ্কিতি বোস। ২০২০ সালে তাঁকে ‘Self Made Woman 2020’র খেতাব দেওয়া হয়। তিনি হলেন জিলিঙ্গোর সিইও।

Related Articles