টাইমলাইনটেক নিউজভারতআন্তর্জাতিক

ফের বড় ধাক্কা পেল চিন! এবার জিনপিংয়ের দেশ ছেড়ে ভারতকে পছন্দ করল এই বিশ্বখ্যাত কোম্পানি

বাংলা হান্ট ডেস্ক: যত দিন এগোচ্ছে ততই চিন (China) ও তাইওয়ান (Taiwan)-এর মধ্যে উত্তেজনা বাড়ছে। এমতাবস্থায়, তাইওয়ানের কোম্পানিগুলি চিনকে দূরে সরিয়ে রেখে আরও ভালো বিকল্প খুঁজছে। শুধু তাই নয়, পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে তাইওয়ানের কোম্পানিগুলির কাছে পছন্দ হিসেবে উঠে আসছে ভারত। ইতিমধ্যেই তাইওয়ানের অন্যতম বড় কোম্পানি ফক্সকন(Foxconn)-ও এই ইঙ্গিত দিয়েছে। জানা গিয়েছে ফক্সকন ভারতে তাদের ব্যবসা এবং বিনিয়োগ বাড়ানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে।

বেদান্তের সাথে সহযোগিতায় চিপ তৈরির প্রস্তুতি: জানিয়ে রাখি যে, অ্যাপল, শাওমি সহ একাধিক কোম্পানির স্মার্টফোন নির্মাতা ফক্সকন ইতিমধ্যেই ভারতে তিনটি কারখানা পরিচালিত করছে। তামিলনাড়ু এবং অন্ধ্রপ্রদেশে ফক্সকনের এই তিনটি কারখানা রয়েছে। কারখানাগুলিতে, অ্যাপল এবং শাওমির মতো ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন সহ আরও একাধিক ব্র্যান্ডের জন্য ইলেকট্রনিক পণ্য তৈরি করা হয়। ফক্সকনের ভারতীয় ইউনিট ভারত FIH IPO এই প্রস্তুতি নিচ্ছে। এছাড়াও, ফক্সকন ইতিমধ্যেই ভারতে বেদান্তের (Vedanta) সাথে যুক্ত হয়ে ইলেকট্রনিক ডিভাইসের জন্য ডিসপ্লে প্যানেল এবং সেমিকন্ডাক্টর চিপ তৈরির ঘোষণাও করেছে।

ফক্সকন চেয়ারম্যান এই ইঙ্গিত দিয়েছেন: দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের ফলাফলের পর ফক্সকনের চেয়ারম্যান ইয়ং লিউ (Young Liu) গত সপ্তাহে ইনভেস্টর কলে ভারতীয় ব্যবসা নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন। তিনি বলেন, ভারতে সামগ্রিকভাবে শিল্পের পরিবেশের উন্নতি হয়েছে। এর পাশাপাশি সরকারি পর্যায়েও দক্ষতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বিনিয়োগকারীদের সাথে কথাবার্তা চলাকালীন তিনি ভারতের ক্রমবর্ধমান গুরুত্বের উপর জোর দিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, “আমরা মনে করি ভারত ভবিষ্যতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে চলেছে। সামগ্রিকভাবে, আমি দেখছি যে ভারতে আমাদের ব্যবসা সঠিক পথে চলছে। আমি মনে করি এটি আগত সময়ে আরও ভালো হতে চলেছে।”

ফক্সকন ইলেকট্রিক গাড়িও তৈরি করবে: যদিও, ফক্সকন চেয়ারম্যান কোনো বিনিয়োগ পরিসংখ্যান বা নির্দিষ্ট কোনো পণ্যের তথ্য দেননি। বরং তিনি জানিয়েছেন, “সামগ্রিকভাবে, ভারতে আমাদের গ্রুপের বিকাশ সক্রিয়ভাবে প্রসারিত হতে চলেছে।” উল্লেখ্য যে, লিউ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং ইলেকট্রনিক্স ও আইটি মন্ত্রকের আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করেন। এছাড়াও, তিনি প্রধানমন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট আধিকারিকদের ভারতে বৈদ্যুতিক যানবাহন তৈরি করার প্রসঙ্গে এবং সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং ও ইলেকট্রনিক্সের মতো সেক্টরে পোর্টফোলিও সম্প্রসারণের পরিকল্পনা সম্পর্কে অবহিত করেন।

হন হাই ফ্যাসিলিটিতে নির্মিত হচ্ছে নতুন প্ল্যান্ট: এর আগে জানা গিয়েছিল যে, ফক্সকন চেন্নাইয়ের কাছে তার হন হাই (Hon Hai Facility) ফ্যাসিলিটিতে আরেকটি প্ল্যান্ট তৈরি করছে। ইতিমধ্যেই ফক্সকন এখানে অ্যাপলের জন্য স্মার্টফোন তৈরি করে। এদিকে, অ্যাপলের “মেড-ইন-ইন্ডিয়া” স্মার্টফোনের ব্যবসা দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে। অ্যাপল জানিয়েছে যে দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ভারতে স্মার্টফোন এবং অন্যান্য পণ্যের চাহিদা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। অ্যাপলের মতে, তাদের ভারতীয় ব্যবসা দ্বিগুণ হওয়ার পথে দাঁড়িয়ে রয়েছে।

চিন-তাইওয়ান উত্তেজনা চরমে: এমনিতেই বর্তমান সময়ে চিনের সঙ্গে তাইওয়ানের উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। আর ঠিক সেই আবহেই ফক্সকন এই ইঙ্গিত দিয়েছে। সম্প্রতি মার্কিন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের পর উত্তেজনা দেখা দেয়। এরপর চিনও তাইওয়ানের আশেপাশে আগ্রাসী সামরিক মহড়া চালায়। এদিকে, তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে একদল মার্কিন সাংসদের বৈঠকের পর চিন আরও ক্ষুব্ধ হয়েছে। পাশাপাশি, চিন তাইওয়ানের চারপাশে আরও জোরদার আক্রমণাত্মক সামরিক মহড়ার ঘোষণা করেছে। যদিও, এই ঘোষণা তাইওয়ানকে ভয় দেখানোর চেষ্টা হিসেবে মনে করা হচ্ছে।

এমতাবস্থায়, এই পরিবর্তিত পরিস্থিতির কারণে তাইওয়ানের কোম্পানিগুলি চিনা ব্যবসার ওপর তাদের নির্ভরতা কমাতে  অন্যান্য দেশে প্ল্যান্ট স্থাপন করতে চাইছে। পাশাপাশি, ভারতও এর সুফল পাচ্ছে। তবে, চিন ছেড়ে তাইওয়ানের কোম্পানিগুলিকে আকৃষ্ট করার ক্ষেত্রে ভারত ভিয়েতনাম এবং ইন্দোনেশিয়ার মতো দেশগুলির চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles