টাইমলাইনটাকা পয়সাভারত

১ টাকার শেয়ার পেরোলো ১,৯০০-র গণ্ডি! ১০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করলে আপনিও হতেন কোটিপতি

বাংলা হান্ট ডেস্ক: আমাদের চারপাশে এমন অনেকেই থাকেন যাঁরা নিয়মিতভাবে শেয়ার বাজারে (Share Market) বিনিয়োগ করেন। মূলত, এখানে ঝুঁকির সম্ভাবনা থাকলেও কখন কোন শেয়ারের বাজারদর হু হু করে বৃদ্ধি পেয়ে গ্রাহকদের লাভবান করে তুলবে তা বলতে পারেন না কেউই। ইতিমধ্যেই এই ধরণের অনেক শেয়ার উপলব্ধ রয়েছে যেগুলি দীর্ঘমেয়াদে তাদের বিনিয়োগকারীদের দুর্দান্ত লাভ দিয়েছে। এমনই একটি স্টক হল কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাঙ্কের (Kotak Mahindra Bank) শেয়ার। যেটি বিগত ২০ বছরে, তার বিনিয়োগকারীদের রীতিমতো কোটিপতি বানিয়ে দিয়েছে।

২০ বছরে এতটা বেড়েছে শেয়ারের দাম: মূলত, কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাঙ্ক শেয়ার কিভাবে তার বিনিয়োগকারীদের সমৃদ্ধ করেছে সেটি বিগত ২০ বছরে শেয়ারের দামের উর্ধ্বগতি থেকে স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। ২০০১-০২ সালে কোটাক মাহিন্দ্রার স্টকের দাম ছিল প্রায় ১.৭০ টাকা। কিন্তু ২০২২ সালের শেষ মাসে, এটি ১,৯৩৪ টাকার স্তরে পৌঁছেছে। যার ফলে বিনিয়োগকারীরাও দুর্দান্ত রিটার্ন পেয়েছেন।

বিশেষজ্ঞরা দিয়েছেন “Buy” রেটিং: এমতাবস্থায়, যদি কোনো বিনিয়োগকারী ২০ বছর আগে এই ব্যাঙ্কিং শেয়ারে দীর্ঘমেয়াদের ভিত্তিতে ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন, সেক্ষেত্রে আজ তা ১১ কোটি টাকারও বেশি পরিমানে পৌঁছে গিয়েছে। অর্থাৎ কোটাক মাহিন্দ্রার স্টক দীর্ঘমেয়াদে বিনিয়োগকারীদের কোটিপতি বানিয়ে দিয়েছে। পাশাপাশি, ইতিমধ্যেই এই শেয়ার সম্পর্কে শেয়ার বাজার বিশেষজ্ঞদের ইতিবাচক মতামত পাওয়া গিয়েছে এবং তাঁরা এটিকে “Buy” রেটিং-ও দিয়েছেন।

গত ১০ বছরে এভাবেই দাম বেড়েছে:
২০১২-র ২ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ৩০৬ টাকা। ২০১৩-র ১ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ৩৭৬ টাকা।২০১৪-র ৭ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ৫৬১ টাকা।২০১৫-র ১৩ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ৬৭৬ টাকা।২০১৬-র ১৮ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ৭৭৯ টাকা।২০১৭-র ১৭ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ১,০২৩ টাকা।
২০১৮-র ৯ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ১,১৩৫ টাকা।
২০১৯-এর ২২ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ১,৫৬৯ টাকা।
২০২০-র ২০ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ১,৮৮৯ টাকা।
২০২১-এর ১২ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম ছিল ২,০৭৪ টাকা।
২০২২-এর ৫ নভেম্বর এই শেয়ারের দাম হয়েছে ১,৯৩৪ টাকা।

বাজারে পতন পরিলক্ষিত হলেও শেয়ারের দাম বেড়েছে: এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, গত সোমবার শেয়ার বাজার পতনের সাথে শুরু হয় এবং উভয় সূচকই লেনদেন শেষে লাল দাগে বন্ধ হয়। সারা দিনের ওঠানামার পরে অবশেষে BSE-এর ৩০-শেয়ার সেনসেক্স ৩৩.৯ পয়েন্ট বা ০.০৫ শতাংশের সামান্য পতনের সাথে ৬২,৮৩৪.৬০ পয়েন্টে বন্ধ হয়ে যায়। এদিকে, NSE নিফটি ৪.৯৫ পয়েন্ট অর্থাৎ ০.০৩ শতাংশ কমে ১৮,৭০১.০৫-এর স্তরে বন্ধ হয়েছে। প্রথম দিনের লেনদেনের সময়, সেনসেক্স ৩৬০.৬২ পয়েন্টে নেমে যায়। যদিও, এই পতনের মধ্যে, কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাঙ্কের শেয়ারগুলিতে একটি বড়সড় উর্ধ্বগতি প্রত্যক্ষ করা গেছে। যার ফলে শেয়ারগুলির দাম ৩.০৫ টাকা বেড়ে আপাতত ১,৯৩৩.৮৫ টাকা হয়েছে।

Money,Indian Ruperes,Crore,Investor,Share Market,Stock Price,Profit,Kotak Mahindra Bank,India,National

সেপ্টেম্বরের ত্রৈমাসিকে মুনাফা বেড়েছে ২৭ শতাংশ: প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাঙ্ক হল একটি ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস গ্রুপ। যা রিটেল ব্যাঙ্কিং, কর্পোরেট ব্যাঙ্কিং, ইনভেস্টমেন্ট ব্যাঙ্কিং এবং স্টক ব্রোকিং সহ অন্যান্য পরিষেবা প্রদান করে। এমতাবস্থায়, আপনি যদি এই ব্যাঙ্কের প্রকাশিত ত্রৈমাসিক ফলাফলগুলি দেখেন, সেক্ষেত্রে দেখা যাবে কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাঙ্কের মোট মুনাফা চলতি আর্থিক বছরের সেপ্টেম্বর ত্রৈমাসিকে হয়েছে ২,৫৮১ কোটি টাকা। যা প্রায় ২৭ শতাংশ বেড়েছে। এর পাশাপাশি, ব্যাঙ্কের আয়ের ক্ষেত্রেও একটি শক্তিশালী বৃদ্ধি ঘটেছে।

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করার আগে অবশ্যই একজন মার্কেট এক্সপার্টের পরামর্শ নিন)

Related Articles