টাইমলাইনটাকা পয়সাবিশেষআন্তর্জাতিক

স্নানের জল, বগলের কেশ, থুতু বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা কামাচ্ছেন তরুণী! কিনবেন নাকি?

বাংলাহান্ট ডেস্ক : পেটের তাগিদে আমরা সকলেই কোন না কোন পেশার সাথে যুক্ত। কিছু মানুষের ক্ষেত্রে তাদের পেশা হয় তাদের পছন্দের মাধ্যম আবার কিছু মানুষকে অর্থের জন্য এমন অনেক পেশাকেই বেছে নিতে হয় যা তাদের করতে একটুও মন সায় দেয় না। যত দিন যাচ্ছে পৃথিবীতে নিত্যনতুন পেশার দরজা খুলে যাচ্ছে। সময়ের সাথে সাথে মানুষ যত আধুনিক হচ্ছে ততোই নিত্যনতুন পেশার জন্ম দিচ্ছে। এর মধ্যে কিছু পেশা অত্যন্ত কঠিন আবার কিছু পেশা বেশ মজারও।

কিন্তু এমন কি কখনো শুনেছেন, এক লাস্যময়ী তরুণী তার স্নানের জল, নখ বিক্রি করাকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন? আর এর দরুন তার মাসে আয় হয় লক্ষ লক্ষ টাকা। অবাক লাগলেও একথা সত্যি!

তরুণীর নাম রেবেকা ব্লু। নেট দুনিয়ায় তার লক্ষ লক্ষ ফলোয়ার। তাকে এক ঝলক দেখতে পাওয়ার জন্য ব্যাকুল হয়ে বসে থাকেন ভক্তকুল। কিন্তু সেই তরুণী সহজে ধরা দেন না। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মানুষের অদ্ভুত রকম পেশার কথা শোনা গেলেও রেবেকার পেশাটি একেবারে যে অত্যাধুনিক তা বলাই বাহুল্য। উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ার বাসিন্দা রেবেকা ব্লুর বয়স ২৮ বছর। পায়ের নখ বিক্রি করে প্রতি মাসে আয় প্রায় ৭ লক্ষ টাকা।

নেট মাধ্যমে রেবেকাকে একবার দেখার জন্য হইচই পড়ে যায়। সারা বিশ্ব জুড়ে তার অগণিত ভক্ত। কিন্তু সামনে থেকে ভক্তকুলের কাছে ধরা দিতে চান না রেবেকা। তাই তার ব্যবহৃত জিনিস বিক্রি করে ভক্তদের মনোবাঞ্ছনা পূর্ণ করেন রেবেকা। শুধু যে পায়ের নখ তা নয়, তার বগলের কেশ, স্নানের জল, ইয়ারবাডও রয়েছে বিক্রির তালিকায়। এর পাশাপাশি তিনি তার চিবানো খাবার, থুতুও বিক্রি করেন নেট মাধ্যমে। এইসকল বর্জ্য পদার্থ তিনি তার পরিচারিকাকে জমিয়ে রাখতে বলেন। এরপর সেগুলি বিক্রি করেন মোটা দামে। রেবেকা জানিয়েছেন, জিনিসগুলি বিক্রি করে যে অর্থ উপার্জন হয় তা তিনি রাস্তার কুকুর ও বিড়ালের কাজে লাগিয়ে দেন।

Related Articles

Back to top button