টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

নন্দীগ্রামে একই দিনে তৃণমূল ও শুভেন্দু অধিকারীর সভা, ফিরহাদ বললেন এটা ঠিক করছে না ও

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ যেই নন্দীগ্রাম থেকে তৃণমূলের (All India Trinamool Congress) উত্থান, এবার সেখানেই ধীরে ধীরে পায়ের তোলার মাটি সরছে শাসক দলের। আর তাঁর প্রধান কারণ হলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। বিগত কয়েকমাস ধরে তৃণমূলের সাথে ওনার দূরত্ব বেড়েই চলেছে। আর এই নিয়ে বড় চিন্তায় শাসক দল। আর এবার তৃণমূলকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে নন্দীগ্রামে একটি সভা করতে চলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। আর একই দিনে নন্দীগ্রামে তৃণমূলের আরেকটি সভা রয়েছে, সেখানকার প্রধান বক্তা হলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

একদিকে শুভেন্দু অধিকারীর গতিবিধি নিয়ে তৃণমূলের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে চরম আশঙ্কা। গুঞ্জন উঠেছে যে, ২০২১ এর নির্বাচনের আগে শুভেন্দু অধিকারী দলবল নিয়ে তৃণমূল ছাড়তে পারেন। এমনকি ওনার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে প্রবল। আর এর মধ্যেই আগামীকাল নন্দীগ্রামে ভূমি উচ্ছেদ কমিটির ব্যানারে একটি জনসভার ডাক দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু অধিকারীর এই সভার সাথে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই। সম্পূর্ণ অনুষ্ঠানটিই হবে জমি উচ্ছেদ কমিটির ব্যানারে এবং শুভেন্দু অধিকারীর তত্বাবধানে। আরেকদিকে, একই দিনে নন্দীগ্রামের হাজারকাটায় পাল্টা সভা ডেকেছে তৃণমূল। তৃণমূলের এই সভায় যোগ দিতে পারেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

আজ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ফিরহাদ হাকিম। ওনাকে এই নিয়ে প্রশ্ন করা হলে উনি বলেন, শুভেন্দু অধিকারীর উচিৎ ছিল দলের হয়েই সভা ডাকা। আমরা সবাই দলের সদস্য। শুভেন্দুও দলের সদস্য। তৃণমূলের সভা মানে আমাদের সভা। আমরা তো কেউ আর নির্দল নই। ফিরহাদ হাকিম আক্ষেপ করে জানিয়েছেন, শুভেন্দু এটা ঠিক করেনি।

Back to top button