টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

তৃণমূলে ফের ভাঙন ধরাল শুভেন্দু, ভোটের আগে বিজেপিতে যোগ দিলেন দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ইতিমধ্যে রাজ্যে দুই দফার নির্বাচন হয়ে গিয়েছে। তৃতীয় দফার নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে সবাই। আগামী ৬ এপ্রিল রাজ্যের ৩ জেলার ৩১ আসনে হতে চলেছে তৃতীয় দফার নির্বাচন। আর এই নির্বাচনের আগে তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা দল ছেড়ে যোগ দিলেন বিজেপি। শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে কোচবিহার পুরপ্রশাসক ভূষণ সিংহ যোগ দিলেন বিজেপিতে।

শনিবার কোচবিহারের দিনহাটার সংহতি ময়দানে শুভেন্দু অধিকারীর হাত থেকে বিজেপির পতাকা ধরেন ভূষণ সিংহ। বিজেপিতে যোগ দিয়েই ভূষণবাবু বলেন, তৃণমূলে থেকে কোনও কাজ করতে পারছিলাম না। দমবন্ধ হয়ে আসছিল দলে, তাই এবার বিজেপিতে যোগ দিলাম। বলে রাখি, অনেকদিন ধরেই ভূষণ সিংহকে নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা চলছিল। আর আজ সেই জল্পনার অবসান হল।

বিজেপিতে যোগ দিয়ে ভূষণ সিংহ বলেন, কোচবিহার পুরসভার পুরপতি থাকাকালীন কাজে বাধা দিত দলীয় নেতারা। অনেকবার এই নিয়ে সরব হয়েও কোনও সুরাহা হয়নি। তিনি বলেন, কার্যত ঠুঁটো জগন্নাথ হয়ে বসে থাকতে হত। এভাবে আর নেওয়া যাচ্ছিল না, সেই কারণেই বিজেপিতে যোগ দিলাম। তিনি বলেন, আগামী দিনে বিজেপির হয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই।

বলে দিই, আগামী ১০ এপ্রিল চতুর্থ দফার নির্বাচনে কোচবিহার বিধানসভার ৯টি আসনে ভোট হতে চলেছে। আর তাঁর আগেই তৃণমূলের এই দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা বিজেপিতে যোগ দিলেন। যদিও, ভূষণ সিংয়ের দলবদল নিয়ে কোনও প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছে কোচবিহার জেলার তৃণমূল নেতৃত্ব। এদিন কোচবিহার তৃণমূলের কোর কমিটির সদস্য আবদুল জলিল আহমেদ বলেন, ‘উনি সব দলই ঘুরে নিয়েছেন, এবার আর কোনও দল করার নেই ওনার। কারও নীতি আদর্শ না থাকলে এরকম ভাবেই বারবার দলবদল করে। ওনার চলে যাওয়াতে তৃণমূলের কোনও ক্ষতি ববে না, বরঞ্চ লাভই হবে।

Back to top button