টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘পা কেটে নেব, হাত খসিয়ে দেব” প্রকাশ্যে বিরোধীদের হুমকি তৃণমূল নেতার

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বাংলার রাজনীতিতে অচল হয়ে গেছে সৌজন্য। পালটা হুমকি যেন লেগেই রয়েছে। এবার বিরোধীদের উদ্দেশে কু’কথার ফুলঝুড়ি মালদহের (Malda) জেলা সভাপতি আব্দুর রহিম বক্সির। বিরোধীদের হাত খসিয়ে দেওয়া এবং পা কেটে নেওয়া হুমকি দেন তিনি। তৃণমূল জেলা সভাপতির এহেন মন্তব্যের সমালোচনায় সরব হয়েছে গেরুয়া শিবির। তাঁকে খোঁচা দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)।

তৃণমূলের বিরুদ্ধে অযথা কুৎসা রটানো হচ্ছে, এই অভিযোগে মালদহে একটি মিছিল বের করা হয়। ওই মহামিছিল শেষে গাজোল বাসস্ট্যান্ডে এক পথসভার আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে মালদহ জেলা তৃণমূল সভাপতি আব্দুর রহিম বক্সি বিরোধী বিজেপি, সিপিএম এবং কংগ্রেসকে একসঙ্গে তোপ দাগেন। হুমকি দিয়ে তিনি বলেন, ‘আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচন প্রতিরোধ গড়ে তুলব। তৃণমূল কর্মীরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে চুপ করে বসে আছে। হাতে বালা পরে নয়। বাঁশ দেখালে হাত খসিয়ে দেওয়া হবে। পা কেটে দেওয়া হবে। প্রতিটি বুথে তৃণমূল ঐক্যবদ্ধ। কত শক্তি আছে বুথে নেমে দেখান। পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাঁশ, লাঠির বদলা নেবে সাধারণ মানুষ।’

তৃণমূল জেলা সভাপতির এই বিস্ফোরক মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপান উতর। বিরোধীদের দাবি করেন, পরিকল্পনা করে অশান্তিতে ইন্ধন জোগাচ্ছেন আব্দুর রহিম বক্সি। বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘এই কথার মাধ্যমে বোঝা যায় ওনার সংস্কৃতি ঠিক কীরকম। যেমন সংস্কৃতি তেমনই কথা বলেছেন।’ সিপিএম এবং কংগ্রেসও এই মন্তব্যের কড়া নিন্দা করেছে।

তবে শুধু আব্দুর রহিম বক্সিই নন। এমন কুকথা যেন লেগেই রয়েছে। দিনকয়েক আগে তৃণমূলের বর্ষীয়ান সাংসদ সৌগত রায় বিরোধীদের ‘বাঁশপেটা’র নির্দেশ দেন। তার পালটা উত্তরও দেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এবার বিরোধীদের হাত খসিয়ে দেওয়া এবং পা কেটে নেওয়ার হুমকি দিয়ে সেই তালিকায় যুক্ত হলেন আব্দুর রহিম বক্সি।

Related Articles