fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে নাম তৃণমূল সাংসদের, জোর বিতর্ক রাজ্য রাজনৈতিক অন্দরে

বাংলা হান্ট ডেস্ক : এমনিতেই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ও নাগরিক পঞ্জি নিয়ে যে ভাবে দেশ জুড়েঅশান্তির বাতাবরণ তৈরি হয়েছে তাতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের ওপর ব্যাপক হারে প্রভাব পড়েছে। কোনও ভাবেই কেন্দ্রীয় সরকারের এই দুই আইন রাজ্যে লাগু করতে দেওয়া যাবে না তাই ইতিমধ্যেই মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মিছিল পদযাত্রায় হেঁটেছেন তাঁর সঙ্গে সমস্ত অ বিজেপি মুখ্যমন্ত্রীদের এক হওয়ার বার্তা দিয়েছেন, আর এরই মধ্যে কোতুলপুরে সিপিএমের ডাকা এর আরসি প্রতিবাদ মঞ্চে উপস্থিত হয়েছিলেন তৃণমূল নেতা প্রদীপ গরাই, জা নিয়ে কিন্তু কম বিতর্ক হয়নি।

তবে এ বার আরও এক ধাপ এগিয়ে পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে নাম উঠল মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রের সাংসদ আবু তাহিরের, তৃণমূল সাংসদ আবু তাহেরের নাম এখন প্রচারপত্রে ঘুরে বেড়াচ্ছে যার জেরে ব্যাপক অস্বস্তি তৈরি হয়েছে শাসক শিবিরের অন্দরে। যদিও তাঁকে না জানিয়েই প্রচারপত্রে নাম তুলে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন আবু তাহের। যদিও তা মানতে নারাজ পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার সদস্যরা।

ব্যাস এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে রাজ্যে তৃণমূলের বিরোধিতা করতে আবারও নতুন করে নাটক শুরু করেছে বিজেপি। তাই তো ইতিমধ্যেই বিজেপি র কেন্দ্রীয় সহ পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন টুইট করে সেই আবু তাহেরের নাম সহ প্রচারপত্র প্রকাশ্যে এনেছেন। যদিও শুধুমাত্র এখানেই থেমে থাকেননি ক্যাপশনে লিখেছেন পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া মুর্শিদাবাদে বিক্ষোভ কর্মসূচি নিয়েছে আর সেখানে তৃণমূল সাংসদকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

যদিও শুধুমাত্র আবু তাহের খান একাই নন এর আগে হরির পাড়ার তৃণমূল বিধায়ক নিয়ামত শেখের নামও জড়িয়েছিল পিএফআই এর আরও একটি অনুষ্ঠানে।তবে সাংবাদিক সম্মেলন দেখে আবু তাহের খান সরাসরি জানিয়েছেন তাঁর অনুমতি না নিয়েই এই কাণ্ড করা হয়েছে তাই যারা এই কাজ করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

যদিও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ পিএসআই কে নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছে। এমনিতে উত্তরপ্রদেশ থেকে পিএফ আইয়ের বেশ কয়েকজন সদস্য গ্রেফতার হয়েছেন। পুলিশের অভিযোগ এই পিএসআই নাকি হিংসা ছড়াতে উসকানি দিচ্ছে। যদিও আপাতত ভাবে পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার সম্মেলন হচ্ছে না কারণ তাতে অনুমতি দেয়নি পুলিশ। তবে এই ভাবে তৃণমূল সাংসদের নাম জড়িয়ে পড়ায় ব্যাপক অস্বস্তি তৈরি হয়েছে শাসক শিবিরে।

Back to top button
Close