টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

ভোট পরবর্তী হিংসায় ঘর ছাড়া ছিলেন বহু সিপিএম কর্মী, ক্ষমা চেয়ে বাড়ি ফেরালেন তৃণমূল বিধায়ক

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশ হতেই বাংলার (west bengal) ক্ষমতায় আবারও ফিরে আসে তৃণমূল (tmc)। রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ে হিংসার আগুন। বাংলার এই সংকটের দিনে ঘর ছাড়া হয় বহু বিজেপি এবং সিপিএম (CPIM) কর্মী। এই পরিস্থিতিতে আসানসোলে দেখা গেল ঘর ছাড়া সিপিএম কর্মীদের ফিরিয়ে আনলেন জয়ী তৃণমূল (TMC) বিধায়ক।

শুক্রবার বিধানসভায় শপথ নিয়েই রানীগঞ্জে ফিরে এসে তাপসবাবু শোনেন সেখানকার বহু বিরোধী সমর্থকরা ঘর ছাড়া হয়েছেন। এমনকি তাঁদের পরিবারের সদস্যরাও এই হিংসার পরবর্তীতে আতঙ্কিত রয়েছেন। এরপরই তিনি রানীগঞ্জ শহরের ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডে বেশ কয়েকজন সিপিএম সমর্থিত পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন তিনি।

শুধু তাই নয়, সেইসকল পরিবারের সদস্যদের তিনি পাশে থাকারও আশ্বাস দেন। এমনকি ঘর ছাড়াদের ঘরে ফিরিয়ে আনারও পরামর্শ দেন। নিজের কথা রাখলেন তাপসবাবু। বিরোধী ঘর ছাড়া কর্মীদের ঘরে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করে তাঁদের ফিরিয়ে আনেন তিনি।

এবিষয়ে তাপসবাবু জানান, ‘ভোটের দিন যাদের তৃণমূল কর্মী হিসাবে দেখা যায়নি, তাদেরকেই পরবর্তীতে দেখা গিয়েছে পাড়ায় সবুজ আবির খেলছেন। তারপর দেখা গেছে তারাই নিজেদের তৃণমূল কর্মী বলে দাবি করে সিপিএম ও বিজেপির অপর অত্যাচার চালিয়েছে। এমি এসব একদম সহ্য করব না। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি সবসময়ই বাংলার মানুষকে হিংসা রাজনীতি না করার আবেদন করেছেন। আমিও হিংসা সহ্য করব না। তাই রানীগঞ্জ থানার পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়ে দিয়েছি, এই ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটলে প্রশাসন যেন কড়া পদক্ষেপ নেয়’।

Related Articles

Back to top button