টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

রাতে একা পেয়েই হামলা! তৃণমূল কর্মীকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল তৃণমূলেরই কর্মীরা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংগঠনের মধ্যে একতা আনার কথা বারবার করে বললেও রাজ্যে বিভিন্ন জায়গায় তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল অব্যাহত রয়েছে। গোষ্ঠীদ্বন্দের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বহুবারই রক্তাক্ত হয়েছেন শাসক দলের একাধিক নেতা। এবার ফের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ঘটনাকে কেন্দ্র করে খবরের শিরোনামে উঠে এল দমদমের বর্তমান অবস্থা।

জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে দক্ষিণ দমদম পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূলকর্মী গৌতম বিশ্বাসকে তার দলের কর্মীরাই ব্যাপক মারধর করে। মধুগড় এলাকায় রাতে বাড়ি ফেরার সময় তাঁর ওপর হামলা হয়। মাথায় রিভলভারের বাট দিয়ে মারা হয় বলেই অভিযোগ উঠেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে হাজির হন নাগেরবাজার থানার ঘুঘুডাঙা ফাঁড়ির পুলিশ। এরপরেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে দমদম পুরহাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পুর নির্বাচন শেষ হওয়ার পর থেকেই দক্ষিণ দমদম পুর এলাকায় প্রায়ই অশান্তির আবহ তৈরি হচ্ছে। গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে তৃণমূলেরই এক নেতা প্রবীর পালকে দল থেকে বহিষ্কার করা হলে পরিস্থিতি আরো জটিল হয়ে ওঠে। এরপর পুরভোট শেষ হলে প্রবীর পালের গোষ্ঠীর সঙ্গে ব্রাত্য বসুর গোষ্ঠীর এলাকা দখলের লড়াই আরোও তীব্র হয়।

এই নিয়ে শহর তৃণমূল সভাপতি রাজু সেন শর্মা বলেন, ‘বহিষ্কৃত নেতা প্রবীর পাল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তৃণমূল কর্মীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। শান্ত দমদমকে অশান্ত করার চেষ্টা হচ্ছে। দলকে সব জানিয়েছি।’ তবে ঘটনার জেরে সকাল থেকে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

Related Articles

Back to top button