টাইমলাইনভাইরাল

এগুলো হলো পৃথিবীর সব থেকে ভয়াবহ তিনটি স্থান।

 

 

স্বপ্ন প্রিয়া ঘোষাল: আপনি কি ভয় ভালোবাসেন? তাহলে আপনার জন্য থাকছে পৃথিবীর ৩ টি এমন জায়গা যা আপনার ভেতরের আত্মা টিকে শিহরিত করে তুলবে।

১. পুতুল দ্বীপ, মেক্সিকো – একটা দ্বীপ যার সর্বত্র পুতুল। তবে বলা হয় এরা কেবলই পুতুল না। এদের চোখের মণি ঘোরে এবং একে অপরের সাথে ফিসফিস করে কথা বলে। বলা হয় এখানে যদি কোনো মানুষ প্রবেশ করে তবে সে কোনোভাবেই এখান থেকে জীবিত ফিরে আসতে পারেনা।

                                  পুতুল দ্বীপ

২. আওকিঘারা জঙ্গল, জাপান – সাধারনত অনেক মানুষই ঘন গেছে ঘেরা জঙ্গল পছন্দ করে। বিশেষত রোমাঞ্চ প্রেমী মানুষদের এটি খুব প্রিয় জায়গা। কিন্তু আপনি যদি অন্যান্য জঙ্গলের সাথে এই জঙ্গল টিকে গুলিয়ে ফেলেন তাহলেই কিন্তু সমস্যা। জঙ্গলের প্রবেশ পথে প্রথমেই একটা সাইন বোর্ড চোখে পড়বে যাতে লেখা, ” আপনার জীবন অত্যন্ত মূল্যবান, জঙ্গলে ঢোকার আগে পুলিশ এর সাথে যোগাযোগ করে তবেই ঢুকবেন” বলা হয় প্রতি বছর ৩০০-৪০০ মানুষের মৃত্যু ঘটে এই জঙ্গলে এবং আত্মহত্যার সংখ্যা প্রচুল। তার সাথেই চলতে থাকে ভৌতিক কাণ্ড কারখানা।

                           আওকিঘারা জঙ্গল

৩. ইস্টার্ন স্টেট পেনিটেন্টিয়ারি পেনসিল ভিনিয়া।

ইস্টার্ন স্টেট পেনিটেন্টিয়ারি পেনসিল ভিনিয়া।

ইউ এস এ – অনেকেই হয়ত এই পেনসিলভেনিয়া সিস্টেম টার বিষয় বিশেষ কিছু জানেনা। এই ব্যবস্থায় জেলের কয়েদি দের একটা নির্জন ঘরে একা মরার জন্য ফেলে রাখা হতো। ১৮৩৯ সালে এই ইস্টার্ন স্টেট পেনিটেন্টিয়ারি টা খোলা হয় যেখানে  এরকমই পরিণতি হতো সেই কোয়েদি দের। আজও সেখানে হঠাৎ ঠান্ডা লাগা, নানারকম শব্দ, চিৎকার, কান্না ইত্যাদি ভেসে আসতে শোনা যায়। বলা হয় তাদের আত্মা এখনও সেখানে সেই নির্জনতায় বন্ধ হয়ে আছে।

 

Back to top button