টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারত

শিয়ালদা স্টেশনের মাথায় উড়ছে ছেঁড়া পতাকা! ভাইরাল ভিডিও দেখে তড়িঘড়ি পদক্ষেপ রেলের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আর কয়েকদিন পরেই স্বাধীনতা দিবস (Independence Day)। সেই উপলক্ষেই সারা দেশ জুড়ে চলছে ‘হর ঘর তিরঙ্গা’ (Har Har Ghar Tiranga) কর্মসূচি। এরই মধ্যে অভিযোগ উঠে এলো শিয়ালদা স্টেশনে ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে জাতীয় পতাকা (National Flag At Sealdah Station)। শুক্রবার সকালে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছড়িয়েছে প্রবল উত্তেজনা। এদিন সকাল থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো খুব ভাইরাল হয়। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে শিয়ালদা স্টেশনের মাথায় থাকা জাতীয় পতাকার একটা অংশ ছেঁড়া। অনেকে

ই মনে করছেন ঝোড়ো হাওয়ার দাপটে পতাকার ওই অংশটি ছিঁড়ে গিয়েছে। যদিও এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি সংবাদ মাধ্যম। ইতিমধ্যেই রেল কর্তৃপক্ষ ওই পতাকা বদলে ফেলেছে বলে জানা যাচ্ছে।

‘হর ঘর তিরাঙ্গা’ কী : স্বাধীনতার ৭৫ তম বছরে স্বাধীনতার অমৃত মহোৎসব উদযাপনের সময় তেরঙা উত্তোলনে জনগণকে উৎসাহিত করছে মোদি সরকার। ‘হর ঘর তিরঙ্গা’ প্রচারও শুরু হয়ে গিয়েছে । ২০ কোটি বাড়িতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। সরকারের মতে, তরুণদের মধ্যে দেশাত্মবোধ জাগ্রত হবে।

স্বাধীনতা দিবসের আগে ‘হর ঘর তিরাঙ্গা অভিযান’-র জন্য জাতীয় পতাকা উত্তোলনের বেশ নিয়মে পরিবর্তন করা হয়েছে।

ফ্ল্যাগ কোড ২০২২-এ বদল : ভারতীয় পতাকা বিধি ২০২২ সংশোধন করা হয়েছে চলতি সপ্তাহে। এখন ফ্ল্যাগ কোড অফ ইন্ডিয়া ২০২২-এর দ্বিতীয় ভাগের ২.২ অনুচ্ছেদের ১১ ধারা অনুযায়ী, তেরঙা প্রকাশ্যে বা কোনও নাগরিকের বাড়িতে যে কোনও সময় তেরঙা উত্তোলন করা যেতে পারে। এমনকি রাতেও। পতাকার আকৃতি আয়তাকার হওয়া উচিত। তবে  ছেঁড়া তেরঙা কখনও উত্তোলন করা যায় না।

আগের নিয়ম কী? আগে শুধুমাত্র সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত তেরঙা উত্তোলনের অনুমতি ছিল। আবহাওয়া যাই হোক না কেন। এর আগে মেশিনে তৈরি ও পলিয়েস্টারের জাতীয় পতাকা ওড়ানোর অনুমতি ছিল না। এক্ষেত্রে ভারতের পতাকা কোড ২০২০-এ সংশোধন করা হয়েছে। এখন হাতে বা মেশিনে তৈরি তুলো, পলিয়েস্টার, খাদির পতাকা ব্যবহার করা যায়।

সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে, শিয়ালদা স্টেশনের (Sealdah Station) মূল বিল্ডিংয়ের মাথায় থাকা পতাকা ছেঁড়ার বিষয়টি স্বীকার করেছে পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ। এই বিষয়ে পূর্ব রেলের (Eastern Rainlway) এক আধিকারিক জানান, স্টেশনের মাথায় একটি উঁচু পোলের সঙ্গে এই পতাকাটা আটকানো থাকে। উচ্চতার জন্যই হাওয়ার দাপটে এই পতাকা ছিঁড়ে গিয়ে থাকতে পারে। বিষয়টি সম্পর্কে আমরা জানার পরই এই পতাকা বদলে ফেলা হয়েছে। এছাড়াও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তরফে আশ্বস্ত করে জানানো হয়েছে, দেশের জাতীয় পতাকার মর্যাদা রক্ষার বিষয়টি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয় রেল।

Related Articles

Back to top button