ঘুরে আসুন মেঘের চাদরে মোড়া সিকসিন, সামান্য খরচে পাবেন অনন্ত শান্তি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সিকসিন (Siksin village) দার্জিলিং এর ছোট্ট একটি গ্রাম। মংপু থেকে এই গ্রামটি মাত্র ছয় কিলোমিটার উপরে অবস্থিত। যারা শৈল শহরের কোলাহল থেকে খানিকটা আলাদা ভাবে পাহাড়ে দিন কাটাতে চাইছেন তারা একবার ঘুরে আসতে পারেন এই গ্রামে। যাদের ছবি তোলার শখ হয়েছে তাদের জন্য এই গ্রামটি আদর্শ।

এই জায়গার প্রাকৃতিক রূপ সত্যি অপূর্ব। এই গ্রামের হোমস্টে গুলোতে রাত্রি বাস করলে আপনারা পরের দিন সকালে হাতে গরম কফি নিয়ে বারান্দা থেকে উপভোগ করতে পারবেন কাঞ্চনজঙ্ঘা। সন্ধ্যা নামার পর এখানকার কালো আকাশ মনে হবে জড়িয়ে ধরছে আপনাকে। গ্রামের ছোট ছোট বাড়িগুলির আলো মিটমিট করে চেয়ে থাকবে আপনার দিকে।

আপনার দেখলে যেন মনে হবে আকাশের অজস্র তারা নেমে এসেছে পৃথিবীর বুকে। এই গ্রামের মানুষরা পর্যটকদের আপন করে নেয়। আপনারা চাইলে এই গ্রাম থেকে সকাল বেলা ঘুরে আসতে পারেন দার্জিলিং কিংবা লামাহাটা। সেঞ্চল ওয়াইল্ড লাইফ স্যাংচুয়ারির অন্তর্ভুক্ত সিকসিন। এখানে রয়েছে একটি জঙ্গল ট্রেক।

মংপু থেকে যত উপরের দিকে উঠবেন ততই সাদা মেঘ জড়িয়ে ধরবে আপনাদের। একদিকে পাহাড় আর অন্যদিকে খাদ, তার মাঝের সরু রাস্তা দিয়ে যাওয়া যায় সেঞ্চল ওয়াইল্ড লাইফে। চিতা বাঘ, ভল্লুক, বন্য শূকর ইত্যাদি পশু রয়েছে জঙ্গলে। একদিন সকালবেলা বেরিয়ে পড়তে পারেন লামাহাটা পার্ক এর উদ্দেশ্যে।

screenshot 2023 05 26 19 31 23 94

সেখান থেকে আপনারা যেতে পারেন লাভারস পয়েন্ট ও তিস্তা – রঙ্গিত নদীর সঙ্গমস্থল দেখতে। এই গ্রামের খুব কাছেই রয়েছে মংপুতে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাড়ি। সময় থাকলে একবার ঘুরে আসতে পারেন কবিগুরুর স্মৃতিধন্য এই বাড়ি থেকে। সব মিলিয়ে বলা যায়, এই দুর্দান্ত পাহাড়ি গ্রামে গেলে এক্কেবারে শান্ত হয়ে যাবে মন।