টাইমলাইনভারতরাজনীতি

ভোট হয়নি! আগরতলায় পুননির্বাচনের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে তৃণমূল

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বৃহস্পতিবার সম্পন্ন হয়েছে আগরতলার পুরসভা নির্বাচন। দিনভর ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে উঠেছে একের পর এক হিংসা অভিযোগ। রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল এবং তৃণমূল দুইই ভোটে অবাধ সন্ত্রাসের অভিযোগ করেছে। যদিও, বিজেপির তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে যে, ভোট অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ ভাবে মিটেছে।

শুধু ভোটগ্রহণই না, ভোট প্রচারেও বিজেপির বিরুদ্ধে বারবার হামলা করার অভিযোগ তুলেছে বিরোধীরা। ভোটের দিন বিরোধীদের ক্যাম্প ভাঙচুর, ভোটারদের ভোট দিতে বাধা সহ অজস্র অভিযোগ উঠেছে বিপ্লবের রাজ্যে। তবে অভিযোগ থাকার পরেও আগরতলায় ৮০ শতাংশের মতো ভোট পড়েছে যা সবারই নজর কাড়ছে।

ভোটে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে বৃহস্পতিবারই আগরতলা পূর্ব থানা ঘেরাও করেছিল তৃণমূল। পাশাপাশি সিপিএমের তরফ থেকেও আগরতলা পশ্চিম থানার সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছে। অন্যদিকে, রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল সিপিএমের বিরুদ্ধে পাল্টা মারধরের অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। শাসক দলের অভিযোগ, ভোট দিতে যাওয়ার সময় বিজেপির কর্মী সুকুমার পালকে মারধর করেছে বামেরা। 

অশান্তির ভোটের অভিযোগ তুলে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার কথা জানিয়েছে তৃণমূল। ঘাসফুলের নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘বিজেপির পায়ের তলা থেকে মাতি সরে গিয়েছে। ওঁরা জানে মানুষ ভোট দিলে ওঁরা আর ক্ষমতায় আসতে পারবে না, এই কারণেই ভোটে ওঁরা মানুষকে ভোট দিতে দেয়নি। ত্রিপুরায় গণতন্ত্র নেই। নির্বাচন হয়নি। এই নির্বাচন বাতিল করা হোক। পুননির্বাচন হোক সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানে।”

Related Articles

Back to top button