টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

শহীদ দিবসের মঞ্চ নির্মাণ নিয়ে তৃণমূল সদস্যদের মধ্যে ইট, পাথর ছোঁড়াছুঁড়ি, আহত বেশ কয়েকজন

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ২১ শে জুলাই শহীদ দিবস (Martyr’s Day)। বাংলার (West bengal) তৃণমূল (All India Trinamool Congress) দলের কাছে এটি একটি ঐতিহাসিক দিন। প্রতি বছর মঞ্চে দাঁড়িয়ে বাংলার যুব সমাজকে অনুপ্রাণিত করেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। তবে করোনার আবহে এবারে ভার্চুয়াল মাধ্যমেই সারা হবে সেই বৈঠক।

বচসায় জড়ায় তৃণমূল
সোমবার দুপুরে শহীদ দিবসের প্রাক্কালেও মঞ্চ তৈরি করা নিয়েই বচসা বেঁধে গেল কলকাতা পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের দমদম রোডে তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে। নেত্রীর ভার্চুয়াল বৈঠক জয়েন্ট স্ক্রীনে লাগাবার জন্য তৈরি করা হচ্ছিল মঞ্চ। কিন্তু সেখানেই উত্তপ্ত হয়ে উঠল পরিবেশ। বচসা থেকে গড়ায় হাতাহাতিতে।  ইট, পাথরও ছোঁড়াছুঁড়ি শুরু হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতও হয়েছন বেশ কয়েকজন।

মঞ্চ তৈরি নিয়ে বিরোধ তুঙ্গে
অভিযোগ উঠেছে, তৃণমূল বিধায়ক মালা সাহার অনুগামীরা এই কাজ করতে গেলে, তাঁদের বাঁধা দেয় বিদায়ী কাউন্সিলর গৌতম হালদারের অনুগামীরা। তাঁদের দাবী মঞ্চ করা যাবে না। এই নিয়েই বচসা শুরু হয়। ঘটনার ফলে আহতরা জানিয়েছেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন এই ধরে পার্টি অফিসে থাকি। কিন্তু যারা মঞ্চ করছে, তারা কেউই পার্টি অফিসে থাকে না। কোনও অনুষ্ঠান হলে তারা এখানে ঘোরাফেরা করে এবং ঝামেলা বাঁধানোর চেষ্টা করে’।

ঘটনার পরবর্তী প্রতিক্রিয়া
ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মালা সাহা জানিয়েছেন, ‘আমি এই ব্যাপারে কিছু বলব না। যা জিজ্ঞেস করার গৌতম হালদারকে জিজ্ঞেস করুন’। অপরদিকে গৌতম হালদার জানান, কি হচ্ছে তাঁর আমরা জানি না। তবে যে কেউ মঞ্চ করতে পারে, শহিদের বেদিতে মালাও দিতে পারে, আমাদের কোন আপত্তি নেই’।

Related Articles

Back to top button