টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

বিজেপিতে যোগ দিতে দিল্লী উড়ে গেলেন তৃণমূলের বিক্ষুব্ধ বিধায়ক মিহির গোস্বামী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ একুশের নির্বাচনের পূর্বেই সরগরম রাজনৈতিক মহল। একদিকে শুভেন্দু অধিকারী অন্যদিকে মিহির গোস্বামীকে (mihir goswami) নিয়ে রাজনৈতিক মহলে তর্জা তুঙ্গে। কিছুসময় পূর্বেই মন্ত্রীত্ব ছাড়লেন প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী (suvendu adhikary)। জল্পনার অবসান ঘটিয়ে রাজ্য সরকারের মন্ত্রীত্ব পদ থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি। অন্যদিকে কিছুক্ষণ পূর্বেই তৃণমূলের অপর এক বিধায়ক তথা কোচবিহারের দক্ষিণের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামীকে দেখা গেল বিজেপি বিধায়কের সঙ্গে বিমানবন্দরে।

কোন এক বিমান বন্দরে তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী এবং বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকের (Nisith Pramanik) একসঙ্গে প্রকাশিত একটি ছবিকে ঘিরে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়েছে। তবে কি এবার বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী?

mihir Bangla Hunt Bengali News

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, এই ছবি দিল্লী বিমানবন্দরের হতে পারে। কানাঘুষোয় শোনা যাচ্ছে, আজই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে দেখা করে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে পারেন এই তৃণমূল বিধায়ক। তবে এই বর্তমানে শুভেন্দু অধিকারীর ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে রয়েছে সবুজ শিবির।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর মতই তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামীকে নিয়েও বেশ কিছুদিন ধরে তৃণমূলের অন্দরে জলঘোলা শুরু হয়েছিল। বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই স্যশাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছিলেন এই তৃণমূল বিধায়ক। গত বৃহস্পতিবার বিকেলেও ফেসবুক পোস্টে দলের বিরুদ্ধে নিজের মনের যত অভিমান একসঙ্গে উগরে দিয়ে তিনি লেখেন, ‘২২ বছর আগের তৃণমূলের সঙ্গে আজকের তৃণমূলের কোন মিল নেই। এখানে আমরা জায়গাও দেখতে পাচ্ছি না আমি। তাই আমি এই দলের সঙ্গে আমার সকল সম্পর্ক শেষ করতে ইচ্ছুক। তবে আমি আশাবাদী দলে আমার বহুদিনের যেসকল সাথী, বন্ধু ও শুভানুধ্যায়ীরা রয়েছেন, তারা সকলেই আমাকে মার্জ্জনা করবেন’।

Back to top button