টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

সিপিএম-এর পর এবার ‘টুম্পা সোনা” নিয়ে গান বাঁধল বিজেপির সমর্থকরা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বাংলার একটি ওয়েব সিরিজ, যা মুক্তি পাওয়ার আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলে দিয়েছিল একটি গানের জন্য। সেই গানটি হল ‘টুম্পা সোনা”। পাড়ায় পাড়ায় সবার মুখে মুখে এখন এই গানই চলছে। যদিও গানটি এতদিন ধরে অরাজনৈতিকই ছিল। কিন্তু এবার গানটির রাজনীতিকরণ শুরু হয়েছে। উল্লেখ্য, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি বামেদের ব্রিগেড সমাবেশ। আর সেই সমাবেশে লোক টানতে বাম সমর্থকরা টুম্পা সোনা গানটির প্যারোডি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ নাম কামিয়েছে।

বামেরা করলে বিজেপি পিছিয়ে থাকবে কেন? এবার বিজেপিও বাংলার এই জনপ্রিয় গানটির প্যারোডি বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়েছে। বিজেপির সমর্থকরা টুম্পা সোনার নতুন প্যরোডির নাম দিয়েছে ‘টুম্পা সোনা ৩.০”। আমাগো একখান দ্যাশ আসিলো ও বাম পতনের শব্দ হয় পেজদ্বয়ের যৌথ প্রচেষ্টায় Arup Kanti Pal –এর কণ্ঠে এই গানটি তৈরি করেছে বিজেপির সমর্থকরা। গানটির কথা দিয়েছেন পঞ্চানন নস্কর।

গানের লিরিক্স 

রেজ্জাক হজ্বে গেল সাতবার মন্ত্রী হল
তারাপীঠে গিয়ে সুভাষ খিস্তি খেল
সিঙ্গুর নেতাই হল, তারপর সকাল হল
ঘুম থেকে উঠে দেখি
ভোটার পালায় জানলা দিয়ে
বামকং জোটে এল মনটা ভেঙে গেল
সূয্যির দুশো কোথায়? টেনেটুনে তিরিশ হল!
নকশাল হয়ে যাবো তখন আমি ভেবেছিলাম
তারপর হঠাৎ করেই পিকচারে পীরজাদা এল
ও টুম্পা সোনা পীরের ঝাণ্ডা দে না
আমি মাইরি বলছি আর মার্ক্স পড়ব না
চাঁদনি রাতে পীরজাদার সাথে
যাবো মোনাজাতে ওদের ভোট কুড়াতে
টুম্পা, তোকে নিয়ে ব্রিগেড যাবো
টুম্পা, পীরজাদার স্পিচ শোনাবো
টুম্পা, ফেজটুপি মাথায় রবে
টুম্পা, দাড়ি আরও লম্বা হবে টুম্পা…
এই টুম্পা আয় আয়
টুম্পা আ যা মেরি পাস
আমার ভাইজান আব্বাস
জামানত যাওয়ার আগেই
উল্টে দেব তাস
পালটে দেব বাজি, স্লামালিকুম হাজী
সব স্বপ্ন হবে সত্যি বলছে সুজন চক্কোবোত্তি
সুজন্দা, নাচুন না
এই সুজন্দা, আরে নাচুন না
আমি ফুরফুরা গিয়ে
সাধের গোঁফ কামিয়ে
রিফিউজি ভোটের নামে
এসেছি পিণ্ডি দিয়ে
সামনের ভাদ্র মাসে
কাজির বাড়ি গিয়ে
আরবিতে মন্ত্র পড়ে
টুম্পাকে করব বিয়ে।
“ও মাকু সোনা, তুই দিনেই কানা
আমি বস্তির রানি, তুই শেখের গোলাম
আমার টালির ঘরে সিঁথেয় সিঁদুর পরে
আমি হিন্দুর ছেলে বিয়ে করতে গেলাম”
টুম্পা, ঝাঁটা কেন তুই দেখালি
টুম্পা, বুথে গিয়ে দাগা দিলি?
টুম্পা, বামফ্রন্ট সেই খোয়াবেই
টুম্পা, ভোট কি পদ্মে যাবে টুম্পা?
উল্লেখ্য, ভোটের আগে একদিকে যখন বিভিন্ন দলের রাজনৈতিক নেতা নেত্রীরা ভোটারদের টানতে মাঠে নেমে কাজ করছেন। তখন আরেকদিকে, সেই সমস্ত দলের কর্মী সমর্থকরা টুম্পা সোনা গানে একের পর এক প্যারোডি বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কাঁপাচ্ছেন। এবারের এহেন ভোট প্রচার এর আগে কোনদিনও দেখেনি বাংলা। তাই বলাই যায় যে, এবার ভোটটা একটু অন্যরকমই হবে।

Back to top button