টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

হিন্দিতে ট্যুইট করে গোটা দেশবাসীকে ‘হিন্দি দিবস’-র শুভেচ্ছা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ তিরিশের মহারণে যুদ্ধ হতে চলেছে ভবানীপুরে কেন্দ্রে। মুখ্যমন্ত্রীর আসন বাঁচানোর লড়াইয়ে কোমর বেঁধে লেগে পড়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। অন্যদিকে বিজেপির ঝাঁঝালো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল।

তবে এরই মধ্যে ভবানীপুরের হিন্দিভাষীদের মন জয় করতে মাঠে নামছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঠিক ছিল, আগামী ১৬ ই সেপ্টেম্বর হিন্দিভাষী ভোটারদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিকেল ৪ টের সময় শুরু হবে তাঁর এই সভা। এই সভায় ওই এলাকার ভোটারদের নানা সুবিধা অসুবিধার কথা শুনবেন তিনি। সঙ্গে শুরু করবেন নিজের নির্বাচনী প্রচার।

হিন্দিভাষীদের সঙ্গে সভা করার পূর্বেই হিন্দি দিবস উপলক্ষে সকল দেশবাসী এবং হিন্দিভাষীদের শুভেচ্ছা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সকাল প্রায় ১০ টা নাগাদ নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ট্যুইট করে মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘হিন্দি দিবস উপলক্ষে সকল দেশবাসী এবং হিন্দি ভাষার উন্নয়নে যেসকল ভাষাবিদ অবদান রেখেছেন, তাঁদের অনেক অনেক শুভেচ্ছা জানাই’।

লড়াইয়ের ময়দানে কেউ কাউকে এক চুলও জমি ছাড়তে নারাজ। তারউপর প্রথাগতভাবে হিন্দিভাষীদের একটা বড় অংশ সমর্থন করে বিজেপিকে। যার ফলে বিজেপির দিকেই হিন্দিভাষীদের পাল্লা ভারী থাকে। গত বিধানসভা নির্বাচনে ভবানীপুরে কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় বিরোধী পক্ষকে হারিয়ে ২৮ হাজার ৫০৭ ভোটে নির্বাচিতও হলেও, ভবানীপুরের ৭০ ও ৭৪ নম্বর ওয়ার্ডে হিন্দিভাষী মানুষের বসবাস থাকায়, ওই এলাকায় বেশকিছুটা পিছিয়ে ছিলেন তিনি।

এবার আর সেই ভুল করতে রাজী নন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর আসন বাঁচানোর লড়াইয়ে তাই নির্বাচনের পূর্বেই ওই এলাকার হিন্দিভাষী মানুষদের সঙ্গে কথা বলতে চান মুখ্যমন্ত্রী। সেইমতই আগামী ১৬ ই সেপ্টেম্বর বিকেল ৪ টে নাগাদ এক সভার আয়োজন করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button