টাইমলাইনভারতরাজনীতি

চাপে পড়ে হিন্দুত্বের পথে শিবসেনা? অওরঙ্গাবাদের নাম পরিবর্তন নিয়ে বৈঠক উদ্ধব ঠাকরেদের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বিগত বেশ কয়েকদিন ধরে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের কাছে মহারাষ্ট্রের বুকে ক্ষমতা ধরে রাখাই প্রধান চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর মাঝেই আগামীকাল বিশেষ অধিবেশন ডেকে আস্থাভোট করানোর নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি। ফলে বিদ্রোহী নেতা একনাথ শিন্ডের নতুন দল গড়ে তোলার স্বপ্নই বাস্তব রূপ নেওয়ার মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে বর্তমানে। তবে অপরদিকে ক্ষমতা ধরে রাখার স্বার্থে সবরকম চেষ্টা করে চলেছেন শিবসেনা প্রধান। এদিন রাজ্যপালের নির্দেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে একটি মামলা দায়ের করে শিবসেনা আর তার মাঝেই আবার মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক আয়োজন করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক টালবাহানার মাঝে ‘হিন্দুত্বের স্লোগান’ তোলা এই বৈঠকের প্রধান উদ্দেশ্য বলে মনে করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে অওরঙ্গাবাদের নাম পরিবর্তন করে ছত্রপতি শিবাজীর ছেলের স্মৃতির উদ্দেশ্যে ‘শম্ভাজিনগর’ রাখার প্রসঙ্গে এই বৈঠক বলে জানা গিয়েছে। অতীতে একাধিকবার এ প্রসঙ্গে আলোচনা ব্যর্থ হলেও এ দিনের বৈঠক বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এই বৈঠক সম্পর্কে শিবসেনা নেতা অনিল পরব বলেন, “অওরঙ্গাবাদের নাম পরিবর্তন করে শম্ভাজিনগর রাখার পক্ষে শিবসেনা। সেই কারণে একটি বৈঠক পর্যন্ত ডাকা হয়েছে।”

উল্লেখ্য, বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে এই প্রসঙ্গে একাধিক বৈঠক ডাকা হয়। তবে শিবসেনার দুই জোট সঙ্গী এনসিপি এবং কংগ্রেসের বিরোধ দেখানোর কারণে তা কার্যকর করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। অবশ্য বর্তমানে বিতর্কিত পরিস্থিতি মাঝে অপর দুই দলকে বোঝানোর চেষ্টায় রয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে। সাম্প্রতিক সময়ে একনাথ শিন্ডে দ্বারা একাধিকবার দাবি করা হয় যে, অতীতে শিবসেনা ‘হিন্দুত্বের’ দাবি তুললেও বর্তমানে সেই স্লোগান অনেক শ্লথ হয়ে পড়েছে আর এই অভিযোগ ঘিরে যখন মানুষের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়ে চলেছে, তখন পুনরায় একবার হিন্দুত্বে শান দেওয়ার উদ্দেশ্যে নামতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এক্ষেত্রে অওরঙ্গাবাদের নাম পরিবর্তনের দাবি প্রথম তোলেন শিবসেনার প্রতিষ্ঠাতা বালাসাহেব ঠাকরে। তবে পরবর্তী ক্ষেত্রে কোন না কোন কারণের জেরে তা কার্যকর করা সম্ভব হয়নি, যা পরবর্তীতেও জারি থাকে। তবে এই দিনের বৈঠকে সমাধানের রাস্তা বের হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button