টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

প্রথম ম্যাচে চূড়ান্ত ফ্লপ উমরান, তাও পাশে দাঁড়াচ্ছেন অধিনায়ক হার্দিক

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের শুরুটা জয় দিয়েই করলো ভারত। ডাবলিনের দ্য ভিলেজ স্টেডিয়ামে ভারতকে বেশ কড়া প্রতিদ্বন্দিতা উপহার দিয়েছিল আয়ারল্যান্ড। কিন্তু দিনের শেষে দুই দেশের ক্রিকেটের মধ্যে যে বিশাল ফারাক তা আরেকবার প্রমাণিত হলো। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ৭ উইকেটে জয় পেয়েছে ভারত।

স্টিল কারণে ম্যাচ শুরু হতে দেরি হয় এবং যখন ম্যাচ শুরু হয় তখন তা ২০ ওভার থেকে কমে ১২ ওভারের হয়ে দাঁড়ায়। টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। শুরুতে বেকায়দায় পড়লেও শেষদিকে হ্যারি টেক্টরের দাপুটে ৬৪ রানের ইনিংসে ভর করে ১২ ওভারে ১০৮ রান তোলে আয়ারল্যান্ড। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দীপক হুডার ৪৭-এ ভর করে ১০ ওভারের মধ্যে সেই রান তুলে নেয় ভারত। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন ঈশান কিষান এবং হার্দিক পান্ডিয়া। বল হাতে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেন ভুবনেশ্বর কুমার এবং যুজবেন্দ্র চাহাল।

যাকে নিয়ে গত কয়েক মাস ধরে এত আলোচনা চলছিল সেই উমরান মালিক জাতীয় দলের হয়ে নিজের প্রথম ম্যাচে একেবারেই প্রভাবিত করতে পারলেন না। যেহেতু বৃষ্টির কারণে ম্যাচ সংক্ষিপ্ত হয়ে গিয়েছিল তাই মাত্র এক ওভারে হাত ঘোরানো সুযোগ পেয়েছেন জম্মু-কাশ্মীরের গতিশীল বোলার। সেই এক ওভারে ১৪ রান দিয়েছেন তিনি। তাকে নিয়ে প্রত্যাশা ছিল প্রচুর। কিন্তু প্রথম ম্যাচে অন্তত সে প্রত্যাশা পূরণে তিনি ব্যর্থ।

কিন্তু নিজের তরুণ অস্ত্রের পাশে দাঁড়াচ্ছে সদ্য নিযুক্ত অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া। প্রথমেই তিনি আয়ারল্যান্ডের হ্যারি টেক্টরের প্রশংসা করে বলেছেন, “আইরিশ ব্যাটসম্যানরা দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন তাই বাধ্য হয়ে খুব অল্পসময়ের মধ্যেই আমাদের নিজেদের প্রধান বোলারদের আক্রমণে ফেরত আনতে হয়েছিল। উমরান মালিক আইপিএলে নিজের ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেছিলেন। কিন্তু আমার ওর সাথে কথা বলে মনে হয়েছে ও পুরনো বল হাতে বেশি স্বচ্ছন্দ যে সুযোগ এই ম্যাচে ও পায়নি।”

Related Articles

Back to top button