টাইমলাইনবিনোদন

চূড়ান্ত ফ্লপ ‘কুলি নাম্বার ওয়ান’, তাতেও বাবার থেকে মোটা পারিশ্রমিক আদায় করলেন বরুন

বাংলাহান্ট ডেস্ক: গত ২৫ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছে বরুন ধাওয়ান (varun dhawan) ও সারা আলি খান (sara ali khan) অভিনীত ‘কুলি নাম্বার ওয়ান’ (coolie no 1)। বাবা ডেভিড ধাওয়ানের পরিচালনায় রিমেক এই ছবিটি চরম ফ্লপ হয়েছে বক্স অফিসে। তবে OTT প্ল‍্যাটফর্মে বেশ কয়েকটি রেকর্ডও গড়েছে এই ছবি। এবার জানা গিয়েছে, ছবি ব‍্যর্থ হওয়া সত্ত্বেও নিজের পারিশ্রমিক (salary) ঠিকই আদায় করে নিয়েছেন, তাও আবার বেশ বড় অঙ্কের টাকা।

ছবিটি OTT প্ল‍্যাটফর্ম অ্যামাজন প্রাইমেও মুক্তি পাওয়ায় সোনায় সোহাগাই হয়েছে বরুনের। জানা গিয়েছে এই ছবির জন‍্য ২৫ কোটি টাকা পকেটে ঢুকেছে অভিনেতার। এক ঘনিষ্ঠ সূত্র মারফত খবর, থিয়েটারে মুক্তি সম্ভব না হওয়ায় অ্যামাজন প্রাইমের সঙ্গে একটি চুক্তি হয় ছবি নির্মাতাদের। এতে বরুনের পারিশ্রমিকও এক লাফে অনেকটাই বেড়ে যায়। এর আগে কোনো ছবিতেই এত বেশি পারিশ্রমিক পাননি তিনি।

Varun Dhawan Bangla Hunt Bengali News
শুধু বরুনই নন, বাবা পরিচালক ডেভিড ধাওয়ান পেয়েছেন ১৫ কোটি টাকা। ছবির সহ পরিচালক রোহিত ধাওয়ানও পেয়েছেন ৭ কোটি। সব মিলিয়ে ছবিটি আপাত দৃষ্টিতে ফ্লপ হলেও প্রায় ৫০ কোটি টাকা মুনাফাই হয়েছে ধাওয়ান পরিবারের।

উল্লেখ‍্য, অত‍্যন্ত খারাপ রেটিং পেয়েছে নব্বইয়ের দশকের রিমেক এই ছবিটি। IMDb তে ১০ এর মধ‍্যে মাত্র ৩.৬ রেটিং বরুন সারার ছবির। আলিয়া ভাটের ‘সড়ক ২’ এর পর ফের কোনো ছবি এত খারাপ রেটিং পেল।

858269 varundhawan saraalikhan coolieno11 Bangla Hunt Bengali News
শুধুমাত্র খারাপ রেটিংই নয়, তুমুল ট্রোলও শুরু হয়েছে কুলি নাম্বার ওয়ানকে নিয়ে। বিজ্ঞান ও যুক্তির ধার ও ধারেনি এই ছবি, এমনটাই বক্তব‍্য নেটিজেনদের। ছবির একটি দৃশ‍্য নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল ট্রোল।

দৃশ‍্যটিতে দেখা গিয়েছে, রেললাইনের উপরে একটি বাচ্চা বসে রয়েছে। চলন্ত ট্রেনের সামনে যাতে বাচ্চাটি না পড়ে তার জন‍্য ট্রেনের ছাদ দিয়ে দৌড়াতে থাকেন বরুন। ট্রেনের থেকেও দ্রুত গতিতে ছুটে চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে বাচ্চাটিকে তুলে নেন বরুন। তার সেকেন্ডের মধ‍্যেই সেখান দিয়ে বেরিয়ে যায় ট্রেন।

এই ‘অভাবনীয়’ দৃশ‍্য নিয়েই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে ট্রোল, মিম। নেটিজেনদের বক্তব‍্য সিনেমাকে অতিরঞ্জিত করে তোলার জন‍্য বিজ্ঞানের ধার ধারছেন না পরিচালক প্রযোজকরা। বাস্তবের সঙ্গে এই দৃশ‍্যের এতটাই অমিল যে তা অত‍্যন্ত চোখে লাগছে। তাই মিম, ট্রোল তো হবেই।

Back to top button