টাইমলাইনবিনোদন

দেবী ধূমাবতী দশ মহাবিদ্যার বিধবা রূপ, তাঁকে অলঙ্কার পরিয়ে হিন্দু সংষ্কৃতিকে বিকৃত করার অভিযোগ কালার্সের বিরুদ্ধে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মহালয়া (Mahalaya) মিটে গেলেও তার প্রভাব এখন কাটেনি। ভোর চারটেয় রেডিওতে ‘মহিষাসুরমর্দিনী’ থেকে টেলিভিশনের বিভিন্ন চ্যানেলের অনুষ্ঠান, সব মিলিয়েই মহালয়া। কিন্তু টেলিভিশনের মহালয়ার অনুষ্ঠানগুলো নিয়ে বরাবরই বিতর্ক সৃষ্টি হয়। টিআরপির লোভে অতিরিক্ত রঙচঙ চাপিয়ে মহালয়ার মাহাত্ম্যটাই নষ্ট করে দেন অনুষ্ঠান নির্মাতারা, প্রতিবারই এমন অভিযোগ করেন দর্শকরা। আর এবার হিন্দু সংষ্কৃতিকে বিকৃত করার অভিযোগ উঠল কালার্স বাংলা চ্যানেলের (Colors Bangla) বিরুদ্ধে।

দেবী দশমহাবিদ্যার ভিন্ন ভিন্ন রূপগুলির মাহাত্ম্য বর্ণনা করা হয়েছে এবারের কালার্স বাংলার অনুষ্ঠানে। নাম রাখা হয়েছিল, ‘দেবী দশমহাবিদ্যা’। এই অনুষ্ঠান নিয়েই আপাতত হাসাহাসি চলছে নেটপাড়ায়। অনেকে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন যথেচ্ছ ভাবে হিন্দু পুরাণ নিয়ে ছেলেখেলা করার জন্য। বিশেষ করে দেবী ধূমাবতীর রূপ নিয়ে রীতিমতো বিতর্ক তৈরি হয়েছে নেটমাধ্যমে।

দশমহাবিদ্যার অন্যতম দেবী ধূমাবতী। তিনি দেবী মায়ের বিধবা রূপ। পুরাণে তাঁর রূপ বর্ণনা করা হয়েছে, দেবী ধূমাবতী সাদা বস্ত্র পরিধাণকারী বৃদ্ধা, কোনো রকম অলঙ্কার তাঁর অঙ্গে থাকে না। কিন্তু কালার্সের মহালয়ার অনুষ্ঠানে দেবী ধূমাবতীকে দেখে হতবাক দর্শকরা।

সাদা কাপড়ের সঙ্গে রুদ্রাক্ষের মালা ছাড়াও অলঙ্কার পরেছেন দেবী ধূমাবতী। এই ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সৈরিতী বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সাজ এবং নাচ দেখে হেসেই লুটোপুটি খাচ্ছে নেটিজেনরা। কেউ তুলনা করেছেন ‘গেম অফ থ্রোনস’ এর বাংলা সংষ্করণ বলে। আবার অনেকে রীতিমতো ক্ষুব্ধ। দেবী ধূমাবতীকে অলঙ্কার পরিয়ে হিন্দু সংষ্কৃতিকে নিজের মতো বদলে ফেলা হচ্ছে। দেবী ধূমাবতী যে এত তরুণী নন, সেটাও কি নির্মাতারা জানেন না? এদিকে অনুষ্ঠান করছেন!


শুধু দেবী ধূমাবতী নন, দশমহাবিদ্যার অন্যান্য রূপগুলির সাজসজ্জা নিয়েও হাসাহাসি চলছে নেটপাড়ায়। শিবের নাচের ছিরি নিয়ে ইতিমধ্যে মিম বানানো শুরু হয়ে গিয়েছে। এর আগে দেবী সিংহবাহিনী রূপে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে দেখে একপ্রস্থ খিল্লি হয়েছিল নেটমাধ্যমে। এবার গোটা অনুষ্ঠানটা নিয়েই আপত্তি প্রকাশ করেছেন নেটনাগরিকরা।

Related Articles