টাইমলাইনবিনোদন

মৃত‍্যু নিয়ে ভুয়ো খবর, বেঁচে আছেন বিক্রম গোখলে, সত‍্যিটা জানালেন অভিনেতার স্ত্রী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: প্রয়াত অভিনেতা বিক্রম গোখলে (Vikram Gokhale), বুধবার রাতেই নেটপাড়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল মর্মান্তিক দুঃসংবাদ। বৃহস্পতিবার সকালেই আরেক প্রস্থ চমকানোর পালা সবার। মৃত‍্যু হয়নি অভিনেতার। তাঁর প্রয়াণের ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়েছিল। বিক্রম গোখলের স্ত্রী ভুয়ো খবরের সত‍্যতা নিয়ে মুখ খোলেন এদিন।

বিক্রম গোখলের স্ত্রী ব্রুশালী জানান, অভিনেতা এখনো বেঁচে আছেন। বুধবার বিকেলের পর কোমায় চলে যান তিনি। তারপর থেকে সাড়া নেই তাঁর শরীরে। ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে প্রবীণ অভিনেতাকে। আগামীকাল সকালে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি দেখে চিকিৎসকরা ঠিক করবেন কী করা যায়।


অভিনেতার স্ত্রী আরো জানান, হার্ট এবং কিডনির একাধিক সমস‍্যা নিয়ে গত ৫ নভেম্বর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বিক্রম গোখলে। মাঝে একটু সুস্থ হলেও আবার সঙ্কটজনক হয়ে উঠেছে তাঁর পরিস্থিতি। একাধিক অঙ্গ প্রত‍্যঙ্গ বিকল হয়ে গিয়েছে অভিনেতার। তাঁর বয়স নিয়েও ভুল তথ‍্য ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানান ব্রুশালী। ৮২ নয়, অভিনেতার বয়স এখন ৭৭ বলে দাবি করেন তিনি।

বলিউডের দীর্ঘদিনের সদস‍্য বিক্রম গোখলে। বহু জনপ্রিয় ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ১৯৯৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সঞ্জয় লীলা বনশালি পরিচালিত ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের বাবার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন বিক্রম।

দিল সে, ভুল ভুলাইয়া, দে দনা দন, হিচকি, নিকম্মা, মিশন মঙ্গল এর মতো একাধিক ছবিতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। প্রবীণ অভিনেতা এর আগে জানিয়েছিলেন, বলিউডে পা রাখার সময়ে খুব জটিল পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছিলেন বিক্রম গোখলে। সে সময়ে অমিতাভ বচ্চন তাঁর দেবদূত হয়ে এসেছিলেন।

বিক্রম গোখলে জানিয়েছিলেন, চরম আর্থিক সঙ্কটের মধ‍্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। একটা মাথা গোঁজার জায়গা পর্যন্ত ছিল না তাঁর কাছে। সে সময়ে অমিতাভ নিজে মহারাষ্ট্রের তৎকালীন মুখ‍্যমন্ত্রীর কাছে চিঠি লিখেছিলেন। সরকারের তরফে বাড়ির ব‍্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছিল বিক্রম গোখলেকে। সেই চিঠি নাকি বাঁধিয়ে রেখে দিয়েছেন অভিনেতা।

Related Articles