টাইমলাইনভাইরাল

অহংকারই পতনের মূল, ধীরে ধীরে নিজের পুরনো জায়গায় ফিরে যাচ্ছেন বাংলার রানু মন্ডল

বাংলা হান্ট ডেস্ক: গতবছর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম হলো রানাঘাটের রানু মন্ডল। ফেসবুকে অতীন্দ্র বাবুর করা লাইভে ” তু পেয়ার কা নাগমা হে ” গান গেয়ে রাতারাতি ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল রানাঘাট স্টেশনের রানু মন্ডল। সেখান থেকে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে সোজা হিমেশ রেশামিয়ার স্টুডিওতে। তারপর নানারকম রিয়েলিটি শো তেও দেখা মিলেছিলো রানু মন্ডলের।

শোনা গিয়েছিল, গান গাওয়ার জন্য হিমেশ রেশমিয়া নাকি রানু মন্ডল কে ৭ লক্ষ টাকাও দিয়েছিলেন। একদিকে যেমন রানু মন্ডল তার গানের জন্য ভাইরাল হয়েছিল তেমনই অন্যদিকে তার অহংকার ও কটু কথার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় সমপরিমাণে ভাইরাল হয়েছিল রানাঘাটের রানু মন্ডল।

বেশ কয়েকবার তাকে কথায় কথায় অন্যদের ছোট করতে শোনা গিয়েছে। বলাবাহুল্য হুট করে রানু মন্ডল এর অহংকার গাছের মগডালে উঠে গিয়েছিল। তেমনি কথায় আছে অহংকার পতনের মূল। ধীরে ধীরে কাজের ক্ষেত্রেও এমনটাই হচ্ছে রানু মন্ডলের সাথে।

রাতারাতি লাইমলাইটে আসা রানু মন্ডল যেন ধীরে ধীরে গায়েব হয়ে যাচ্ছে অন্যদের ভিড়ে। ধীরে ধীরে আবার নিজের পুরনো অবস্থায় ফিরে যাচ্ছে রানু মন্ডল। এই কঠিন যুগে নিজের অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখবে রানু মন্ডল নাকি ধোয়াশার মতো গায়েব হয়ে যাবে তা শুধুমাত্র সময়েই বলবে।

Related Articles

Back to top button