টাইমলাইন

ড্রামে আটকে পড়ল পঞ্চাশ ফুটের বিশাল সাপ! তুমুল ভাইরাল ভিডিও

viral video : সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ভিডিও গুলির মধ্যে মাঝে মাঝেই সাপের ভিডিও ভাইরাল হয়। কোনোটি ভয়ানক বিষাক্ত,  কোনোটি বেশ মিষ্টি দেখতে, আবার কোনো কোনো সাপ আবার নিজের বিশাল দেহের জন্যও ভাইরাল হয়ে যায়। তেমনই একটি ভিডিও সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে আলোচনার কেন্দ্রে এসেছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে,  কাদা ভরা একটি জলাশয়ের  তীরে বাঁশে ঘেরা এক নীল ড্রামে আটকা পড়েছিল এক দৈত্যকার সাপ।  ড্রাম থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সে ছটফট করছে, কিন্তু কেউই তার কাছে যাওয়ার সাহস করে নি।

  ভিডিওতে বলা হয়েছে এই অ্যানাকোন্ডার দৈর্ঘ্য ৫৯ ফুটেরও বেশি ।  জানা যাচ্ছে এই ভিডিওটি দুই বছরের পুরানো এবং টুইটারে ১ মিলিয়নেরও বেশি বার দেখা হয়েছে। তবে একটি ফ্যাক্ট চেকিং ওয়েবসাইটের মতে ভিডিওটি সত্যি নয়, ক্যামেরার কারসাজি।

এর আগে এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। ভিডিওটির ক্যাপশনটি লেখা হয়েছে – ব্রাজিলের জিঙ্গু নদীতে ৫০ ফুটেরও বেশি বড় অ্যানাকোন্ডা। ভিডিওটি এখনও পর্যন্ত সাত লাখেরও বেশি বার দেখা হয়েছে। নানান মন্তব্য করেছেন নেটিজেনরা। সারা বিশ্বের ছড়িয়ে থাকা নেটিজেনরা

এই বিশাল সাপটিকে দেখে হতবাক হয়ে গিয়েছেন। অনেকে যেমন এই ভিডিওএর সাপ দেখে মন্তব্য বাক্সে নিজের বিস্ময় প্রকাশ করেছে, আবার অনেকেই এটিকে ভুয়ো ভিডিও বলে উড়িয়ে দিয়েছে।

যদিও ভিডিওতে দেখা নদীটি আসলে একটি রাস্তা এবং আনাকোন্ডা সেই রাস্তাটি পার হচ্ছে। তবে এই ভিডিওটির সাপটিও সত্য বলে মনে হয় না। সম্ভবত একটি ছোট সাপকে এডিট করে বড় দেখানো হচ্ছে। নিউজ ওয়েবসাইট খো দ্বারা জানানো হয়েছে যে ভিডিওটি আসলে ২০১৩ সাল থেকে বারবার ভাইরাল হচ্ছে এবং সাপটিকে একটি রাস্তা পার করতে দেখানো হয়েছে।

Back to top button