টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভিডিওরাজনীতি

মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ভাষণের মাঝে ২ লক্ষ টাকার ব্যাগ লোকালেন মহুয়া মৈত্র, ভাইরাল ভিডিও ঘিরে শোরগোল

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বিতর্ক যেন কোনোমতেই পিছু ছাড়তে চাইছে না তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress) সাংসদ মহুয়া মৈত্রের (Mahua Moitra)। কয়েকদিন পূর্বেই ‘কালী’ বিতর্কে নাম জড়িয়েছিল তাঁর আর এবার লোকসভায় বাদল অধিবেশন চলাকালীন ‘দু লাখ’ টাকার মূল্যবান ব্যাগ লুকিয়ে ফেলার অভিযোগে বিদ্ধ হলেন তৃণমূল নেত্রী।

একদিকে যখন মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ভাষণ দিয়ে চলেছেন তাঁর নিজের দলেরই সাংসদ, ঠিক সেই মুহূর্তেই নাকি মহুয়া মৈত্র দামি ব্যাগ লুকিয়ে ফেললেন! বর্তমানে এহেন গুরুতর অভিযোগই উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। এ সম্পর্কিত একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, তবে এক্ষেত্রে তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের কোনও সুস্পষ্ট প্রমাণ মেলেনি।

গতকাল লোকসভার অধিবেশনে মূল্য বৃদ্ধি বিতর্ক নিয়ে বক্তৃতা দিতে ওঠেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার আর সেই সময় আচমকাই মহুয়া মৈত্রকে পাশে রাখা একটি ব্যাগ তুলে টেবিলের নিচে রাখতে দেখা যায়। পরবর্তীতে তৃণমূল নেত্রীর পাশে এসে বসেন অপর এক তৃণমূল সাংসদ অপরূপা পোদ্দার। বর্তমানে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বেঁধেছে বিতর্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও পোস্ট করে অনেকেই মহুয়া মৈত্রকে খোঁচা মেরেছেন।

এক সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারী লেখেন, “একদিকে যখন মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বিতর্ক চলছে, সেই সময় নিজের দু লাখ টাকার Louis Vuitton-র ব্যাগ লুকিয়ে ফেলছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। আসলে যখনই উনি মূল্যবৃদ্ধির বিষয়টি লক্ষ্য করেছেন, তখনই ব্যাগটি টেবিলের নিচে লুকিয়ে দিয়েছেন।”

প্রসঙ্গত, গতকাল লোকসভার অধিবেশনে মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে শুরু থেকে বেশ আক্রমণাত্মক মেজাজে দেখা যায় তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে। বক্তৃতার শুরুতেই তিনি বলেন, “মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনা করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে, সেই জন্য স্পিকারকে আমি ধন্যবাদ দিতে চাই।” অবশ্য পরবর্তীতে ‘কাঁচা বেগুনে’ কামড় বসিয়ে অধিবেশনে উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে তাক লাগিয়ে দেন তৃণমূল সংসদ।

বারাসাত কেন্দ্র থেকে জয়ী তৃণমূল সাংসদের প্রশ্ন, “আমরা কাঁচা আনাজ পাতি খাই, এটাই কি সরকার চায়?” পরবর্তীতে তার কন্ঠে উঠে আসে ‘রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধি’ প্রসঙ্গ। যেভাবে দেশে পেট্রোল-ডিজেলের পাশাপাশি রান্নার গ্যাসের দাম ক্রমশ বেড়ে চলেছে, সেই প্রসঙ্গকে হাতিয়ার করে গতকাল কেন্দ্র সরকারকে আক্রমণ শানান কাকলি। তিনি বলেন, “৬০০ টাকা থেকে যেভাবে রান্নার গ্যাসের দাম ১০০০ টাকা ছাড়িয়েছে, তা উদ্বেগের। বিগত কয়েক সময়ে গ্যাসের দাম ক্রমশ বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে। কেন্দ্র সরকারের উচিত এখনই এই দাম কমানো, নাহলে সাধারণ মানুষের দুশ্চিন্তা আরও বাড়বে।”

Related Articles