fbpx
টাইমলাইনটেক নিউজভারত

আরো ভালো ভাবে চিড়িয়াখানা উপভোগের জন্য ভারতে ভার্চুয়াল প্রযুক্তি

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ভার্চুয়াল জগত আমাদের জীবনকে অনেকটাই এগিয়ে নিয়ে গেছে। অনেক দূরে থাকা জিনিসও এখন আমাদের মুঠোফোনে বন্দী। কিন্তু চিড়িয়াখানা বা জঙ্গলে বেড়াতে গেলে ভাগ্য সাথে না থাকলে পশু দেখার উপায় থাকে না। কপাল মন্দ হলে বাঘ সিংহ তো দূরের কথা , হরিন জাতীয় প্রাণীর দেখা পাওয়াও দুষ্কর হয়।  ভার্চুয়াল ভাবে এই পরিস্থিতির মোকাবিকা করা সম্ভব। বিশ্বব্যাপী ১০টি চিড়িয়াখানায়  ব্যবহার হয় ভার্চুয়াল প্রযুক্তি। যার ফলে আপনার থেকে দূরের প্রাণীটিও মনে হয় কাছে। প্রশাসনের উদ্যোগে এবার ভারতের দিল্লি ন্যাশনাল জুওলজিক্যাল পার্ক-এ ব্যবহার হতে চলেছে এই প্রযুক্তি।

এই ভার্চুয়াল হেডসেট ব্যবহার করলে দূরের প্রাণীদের সাথে দূরত্ব ঘোঁচাবে হেডসেট।  মনে হতে চিড়িয়াখানায় থাকা বাঘটি আপনার ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে। স্পর্শ-এর অনুভবও পেতে পারেন।  দিল্লি চিড়িয়াখানার ডিরেক্টর সুনেশ জানিয়েছেন , ‘ভার্চুয়াল বাস্তব এক একটা পরিস্থিতি, যা মানুষ অনুভব করতে পারেন কিন্তু আদতে তা সত্য নয়। কিন্তু সত্যিটা জেনেও তা মানুষ পছন্দ করেন। ওই মুহূর্তগুলির স্বাদ পেতে চান।’

পর্যটকরা চিড়িয়াখানায় এসে  প্রাণীদের খুঁজতেই ব্যস্ত হয়ে পড়েন। পেলেও সেই প্রানীকে অনেক সময়ই পান এক পলকের জন্য।  এবার পর্যটকরা চিড়িয়াখানায় পৌঁছতেই একটি অ্যাপ্লিকেশন মোবাইলে ইন্সটল করে নিলে হেডসেটের সাহায্যে অ্যাপটির মাধ্যমে পর্যটকরা বুঝতে পারবেন প্রানীদের অবস্থান ও গতিবিধি।

একই সাথে জানতে পারবেন প্রানীটি সম্পর্কে সাধারন তথ্য। যা এখন পর্যটকরা জানতে পারেন খাঁচার সামনের লেখা দেখে। যা বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই অসম্পূর্ণ। একই সাথে দীর্ঘদিনে খোলা হাওয়া থাকার কারনে অনেকসময় অস্পষ্ট। এবার সেই অভিজ্ঞতার বদল ঘটবে।

Back to top button
Close